ঢাকা কলেজ নয়, এ যেন এখন একখন্ড ‘রেসকোর্স ময়দান’

ঢাকা কলেজ প্রতিনিধি | শিক্ষা ও ক্যাম্পাস
প্রকাশিত: রবিবার, ২৮ নভেম্বর ২০২১ | ১০:১৯:৩৮ এএম
ঢাকা কলেজ নয়, এ যেন এখন একখন্ড ‘রেসকোর্স ময়দান’
শুটিং সেট, মেকাপ, আর্টিস্ট আর লাইট, ক্যামেরা, অ্যাকশনের ঘোষণার পাল্টে গেছে ঢাকা কলেজের কেন্দ্রীয় খেলার মাঠের চিত্র। ১৯৭১ সালের রেসকোর্স ময়দানে ঐতিহাসিক ৭ ই মার্চে বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের ভাষণের অংশটি এখানেই চিত্রায়ন করা হবে। এ যেন এখন একখন্ড ‘রেসকোর্স ময়দান’।

বলছিলাম বাংলাদেশ-ভারত যৌথ প্রযোজনায় বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের জীবন চরিতের উপর নির্মিত বায়োপিক ‘বঙ্গবন্ধু’র বিশেষ একটি অংশের চিত্রায়নের গল্প।

গত কয়েকদিন যাবত কলেজের খেলার মাঠ, পুকুরপাড়, হলমাঠ ঘুরে এমন বিরাট কর্মযজ্ঞই চোখে পড়বে।

বিখ্যাত ভারতীয় পরিচালক শ্যাম বেনেগলের পরিচালনায় গত ২৩ নভেম্বর থেকে ঢাকা কলেজে চলছে ‘বঙ্গবন্ধু’ বায়োপিক চলচ্চিত্রের শুটিং।

সংশ্লিষ্টরা জানান, বায়োপিকে রেসকোর্স ময়দানে ৭ মার্চের ভাষণে উপস্থিতি মানুষের চরিত্রে দেখা যাবে ঢাকা কলেজের শিক্ষার্থীদের৷ তারা জুনিয়র আর্টিস্ট হিসেবে অংশ নিচ্ছেন। এতে বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের চরিত্রে অভিনয় করছেন আরিফিন শুভ ও বঙ্গমাতা শেখ ফজিলাতুন্নেছা মুজিবের চরিত্রে অভিনয় করছেন নুসরাত ইমরোজ তিশা।

বঙ্গবন্ধুর ঐতিহাসিক এই বায়োপিকের চিত্রায়ন ঢাকা কলেজে হওয়ায় বেশ উচ্ছ্বাসিত ঢাকা কলেজের শিক্ষক শিক্ষার্থীরাও।

জুনিয়র আর্টিস্ট হিসেবে শুটিং এ অংশ নেয়া ঢাকা কলেজ শিক্ষার্থী সাদনান তাজ অপন বলেন, ইতিহাসের অংশ হিসেবে নিজেকে জড়িয়ে খুব ভালো লাগছে। ঢাকা কলেজের মাঠে বঙ্গবন্ধুর বায়োপিকের অংশ বিশেষ চিত্রায়ন করা হচ্ছে যা আমাদের জন্য অত্যন্ত গর্বের। আমিও ইতিহাসের অংশ হতে পেরেছি যা আমার জন্য সম্মানের।

ঢাকা কলেজের অধ্যক্ষ অধ্যাপক আই. কে. সেলিম উল্লাহ খোন্দকার বলেন, আবারও ইতিহাসের অংশ হলো ঢাকা কলেজ। বাংলাদেশ-ভারত সরকারের যৌথ প্রযোজিত বঙ্গবন্ধুর বায়োপিক এর ঐতিহাসিক ৭ই মার্চের ভাষণ চিত্রায়িত হচ্ছে ঢাকা কলেজের খেলার মাঠে। ১৯৭০ পরবর্তী কালের বিখ্যাত চলচ্চিত্র পরিচালক শ্যাম বেনেগল ছবিটি পরিচালনা করছেন। শিক্ষক পরিষদ সম্পাদকসহ হল সুপাররা এ বিষয়ে সার্বক্ষণিক খেয়াল রাখছেন। আমরা অত্যন্ত গর্বিত।

উল্লেখ্য, চলতি বছরের ২১ জানুয়ারি ভারতে বঙ্গবন্ধু বায়োপিকের শুটিং শুরু হয়। এতে সহযোগী পরিচালক হিসেবে কাজ করছেন দয়াল নিহালানি। চিত্রনাট্য লিখেছেন অতুল তিওয়ারি ও শামা জায়েদী। গত সেপ্টেম্বরে বাংলাদেশে শুটিংয়ের পরিকল্পনা থাকলেও করোনার কারণে তা পিছিয়ে নভেম্বরের শেষে শুরু হয়েছে। ২০২২ সালের মার্চ মাসে বঙ্গবন্ধুর জন্মদিন উপলক্ষে বায়োপিকটি মুক্তি পেতে পারে।

এমএএস হুমায়ুন কবির/এসএ/দৈনিক বাংলাপত্রিকা

খবরটি গুরুত্বপূর্ণ মনে হলে পেজে লাইক দিয়ে সাথে থাকুন