দীর্ঘদিন মৃত্যুর সাথে পাঞ্জা লড়ে হেরে গেলেন জাকির

আগৈলঝাড়া প্রতিনিধি | সারাদেশ
প্রকাশিত: বুধবার, ২১ এপ্রিল ২০২১ | ০৮:১৮:১৪ পিএম
দীর্ঘদিন মৃত্যুর সাথে পাঞ্জা লড়ে হেরে গেলেন জাকির দীর্ঘদিন যাবত লিভার ক্যান্সারে আক্রান্ত হয়ে স্ত্রী, সন্তান ও পরিবারের সদস্যদের শোক সাগরে ভাসিয়ে না ফেরার দেশে চলে গেলেন বরিশালের আগৈলঝাড়া উপজেলার সরকারী গৈলা মডেল মাধ্যমিক বিদ্যালয়ের ৪র্থ শ্রেণীর কর্মচারী মোঃ জাহাঙ্গীর হোসেন সরদার জাকির (৫০)।

গত একটি বছর মৃত্যুর সাথে পাঞ্জা লড়ে মৃত্যুর কাছে হার মানলেন তিনি। বুধবার দুপুরে নিজ বাড়িতে অসুস্থ অবস্থায় মৃত্যুবরন করেন জাকির। তার মৃত্যুতে সর্বস্তরে নেমে এসেছে শোকের ছায়া। তিনি মৃত্যুকালে স্ত্রী, ১ ছেলেসহ আত্মীয়-স্বজন রেখে গেছেন। তার মৃত্যুর খবর এলাকার সবাইকেই স্তব্ধ করে দিয়েছে। তাকে একনজর দেখার জন্য এলাকার বন্ধু-বান্ধব, শিক্ষক-শিক্ষার্থী, শুভাকাংঙ্খী, আত্মীয়-স্বজন, জনপ্রতিনিধিসহ সর্বস্তরের লোকজন তার বাড়িতে ভীর করেন।

পরিবারের সদস্যরা সবাই শোকার্ত ও কান্নায় ভেঙ্গে পড়েন। পরিবারের সদস্যদের আর্তনাদের সাথে পুরো গ্রাম শোকাচ্ছন্ন হয়ে পড়ে। কিন্তু নিজের পৃথিবীকে সুন্দর করে সাজিয়ে তোলার দারপ্রান্তে এসেই শরীরে জমে থাকা মরন ব্যাধির যন্ত্রনাটা খুব চেপে ধরে। অনেক কষ্টে সাজানো ফুলের বাগানটায় বেঁচে থাকার স্বপ্ন নিয়ে বিভিন্ন স্থানে চিকিৎসার জন্য গেলেও মৃত্যুর কাছে হার মানলেন তিনি।

জাকিরের মৃত্যুতে এলাকার প্রতিবেশি আর শুভাকাংঙ্খীরা হারালো শান্তসৃষ্ট শান্তি প্রিয় জাকির দাদুকে। জাকির সরকারী গৈলা মডেল মাধ্যমিক বিদ্যালয়ে ৩০ বছর যাবৎ কর্মরত ছিল। তিনি এক বছর যাবৎ লিভার ক্যান্সারে আক্রান্ত হয়ে ঢাকা ক্যান্সার হাসপাতালসহ বিভিন্ন স্থানে চিকিৎসা নিয়েছেন। পরিবারের একমাত্র উপার্যনকারী ব্যক্তি ছিলেন জাকির। তার একার আয়ে চলতো পুরো পরিবারটি।

তার একমাত্র ছেলে সরকারী গৈলা মডেল মাধ্যমিক বিদ্যালয়ের এবারের এসএসসি পরীক্ষার্থী সিফাত সরদার জানান, তার বাবার চিকিৎসা করাতে গিয়ে সহায় সম্বল সবেই হারিয়েছেন। তার বিদ্যালয়ের শিক্ষক, সাবেক ও বর্তমান শিক্ষার্থীরা জাকিরের চিকিৎসার জন্য তহবিল গঠন করে সেই টাকা দিয়েই সর্বশেষ চিকিৎসা চলছিল। পরিবারের একমাত্র উপার্যনকারী ব্যক্তি তার বাবা নেই এই কথা যেন ভাবতেই পারছেনা সিফাত।

বুধবার আসর বাদ জাকিরের জানাজা নামাজ শেষে গৈলা ইউনিয়নের মধ্য শিহিপাশা গ্রামের পারিবারিক কবরস্থানে তার লাশ দাফন করা হয়।

তার মৃত্যুতে গভীর শোক ও পরিবারের প্রতি সমবেদনা জ্ঞাপন করেছেন বরিশাল জেলা আওয়ামীলীগের কার্যনির্বাহী কমিটির সদস্য সেরনিয়াবাত আশিক আব্দুল্লাহ, উপজেলা চেয়ারম্যান বীর মুক্তিযোদ্ধা আঃ রইচ সেরনিয়াবাত, সরকারী গৈলা মডেল মাধ্যমিক বিদ্যালয়ের সভাপতি ও উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা মোঃ আবুল হাশেম, উপজেলা আওয়ামীলীগের সাধারন সম্পাদক আবু সালেহ মো. লিটন সেরনিয়াবাত, প্রধান শিক্ষক জহিরুল হক, গৈলা ইউপি চেয়ারম্যান মোঃ শফিকুল ইসলাম টিটু, বিদ্যালয়ের শিক্ষক-শিক্ষার্থী।

আগৈলঝাড়া রিপোর্টার্স ইউনিটির সভাপতি সাংবাদিক সাইফুল মৃধা, নতুন আলো যুব সংঘের সভাপতি সাংবাদিক মনজুর আলম লিটন প্রমূখ।

মঞ্জুর লিটন/এনপি/বাংলাপত্রিকা

খবরটি গুরুত্বপূর্ণ মনে হলে পেজে লাইক দিয়ে সাথে থাকুন