পুলিশের সহায়তায় সেই বৃদ্ধা ফিরে পেলেন তার পরিবার

মহাদেবপুর প্রতিনিধি | সারাদেশ
প্রকাশিত: শুক্রবার, ১৬ এপ্রিল ২০২১ | ০৪:৪৪:৫২ পিএম
পুলিশের সহায়তায় সেই বৃদ্ধা ফিরে পেলেন তার পরিবার নওগাঁর মহাদেবপুর থানা কর্তৃক গত মঙ্গলবার দিবাগত রাতে সুজাইল রাস্তার পাশ হইতে উদ্ধারকৃত বয়োবৃদ্ধ মহিলাকে তার পরিবারের নিকট পৌঁছে দিয়েছে মহাদেবপুর থানা পুলিশ।

বয়োবৃদ্ধ মহিলার নাম মর্জিনা বেগম (৮০), গ্রাম: হাটপারিলা, থানা: পবা, জেলা: রাজশাহী। প্রায় দুই বছর আগে স্বামী পরিত্যক্তা মর্জিনা বেগম(৮০) রাজশাহীর পবা থানাধীন হাটপারিলা গ্রামে তার ছোট ছেলে মজিবরের সাথে বসবাস করাকালীন সময়ে নিখোঁজ হয়। তার তিন মেয়ে, এক ছেলে। দুই বছর যাবত মর্জিনার ছেলেমেয়েরা ও তার স্বজনেরা মর্জিনাকে খোঁজাখুঁজি করে। গত মঙ্গলবার ১৩ এপ্রিল রাত ১০ টা ২১ মিনিটে জাতীয় জরুরি সেবা - ৯৯৯ এর মাধ্যমে সংবাদ পেয়ে মহাদেবপুর থানা পুলিশ মহাদেবপুর থানাধীন সুজাইল রাস্তারপাশ থেকে জীর্ণ শীর্ণ এবং অভুক্ত অবস্থায় মর্জিনা বেগমকে উদ্ধার  করে চিকিৎসার ব্যবস্থা করে।

এ নিয়ে বিভিন্ন সংবাদ মাধ্যমে খবর প্রচার হয়। তার মাধ্যমেই মর্জিনা বেগমের সঠিক পরিচয় শনাক্ত করা সম্ভব হয়। তার প্রেক্ষিতে বৃহস্পতিবার দিবাগত রাত ২ টা ৩০ মিনিটে নওগাঁ জেলার সুযোগ্য পুলিশ সুপার জনাব আবদুল মান্নান মিয়া বিপিএম স্যারের নির্দেশে মহাদেবপুর থানার ওসি আজম উদ্দিন মাহমুদ তার সঙ্গীয় ফোর্সসহ রাজশাহী জেলার পবা থানাধীন হাটপারিলা গ্রামে উপস্থিত হয়ে মর্জিনা বেগমকে তার ছোট ছেলে মজিবর এবং তার পরিবারের কাছে পৌঁছে দেয়। মর্জিনা বেগমকে দুই বছর পর ফিরে পেয়ে তার পরিবারের সদস্যরা আবেগাপ্লুত হয়ে পড়েন।

সত্যতা নিশ্চিত করে মহাদেবপুর থানার অফিসার ইনচার্জ(ওসি) আজম উদ্দিন মাহমুদ প্রতিবেককে বলেন, বৃদ্ধা একটু সুস্থতা লাভ করার পর তার বাড়ি দূর্গাপুর বলে, এর বাহিরে আর কিছু বলতে পারেনা। এরপর ওসি অনুমান করে রাজশাহীর দূর্গাপুর থানার ওসি সাহেবকে অবহিত করেন। এরপর দূর্গাপুর থানার ওসি বিভিন্ন মাধ্যমে খোঁজ নিয়ে জানতে পারেন দূর্গাপুর থানায় ঐ বৃদ্ধার বাবার বাড়ি। ওসি তখন তার স্বজনদের জানান এবং মহাদেবপুর থানাকে জানান। বৃদ্ধার আত্মীয়দের মাধ্যমে তার ছেলের সাথে যোগাযোগ করে বৃদ্ধাকে তার ছেলের কাছে হস্তান্তর করা হয়েছে।

অহিদুল ইসলাম/এসআর/বাংলাপত্রিকা

খবরটি গুরুত্বপূর্ণ মনে হলে পেজে লাইক দিয়ে সাথে থাকুন