গরীবের বন্ধু আবু মুসার জনপ্রিয়তা শক্ত অবস্থানে

বিশেষ প্রতিনিধি | পাঠক কলাম
প্রকাশিত: শনিবার, ২০ মার্চ ২০২১ | ১১:৫৭:১১ এএম
গরীবের বন্ধু আবু মুসার জনপ্রিয়তা শক্ত অবস্থানে
মাতারবাড়ী ইউনিয়নের ৮নং ওয়ার্ডের মেম্বার পদপ্রার্থী মহেশখালী উপজেলা শ্রমীক লীগের সাংগঠনিক সম্পাদক আবু মুসা কলিমুল্লাহ সাধারণ মানুষের কাছে গরীবের বন্ধু বলে খ্যাতি অর্জন করেছেন।

নির্বাচনের তপশিল ঘোষণার আগে থেকে সাধারণ মানুষের পাশে সেবার মনোভাব নিয়ে দাঁড়িয়ে নিজেকে একজন প্রকৃত জনসেবক হিসাবে পরিচিতি করে তুলতে সমর্থ হয়েছে। করোনা কালীন সময়ে নিজস্ব তহবিল থেকে মাতার বাড়ি এলাকার সাধারণ মানুষের ঘরে ঘরে করোনা সহায়তা হিসাবে চাউল, ডাল, তৈল, আলুসহ নিত্য প্রয়োজনীয় জিনিসপত্র পৌঁছে দিয়ে নিজেকে গরীবের বন্ধু বলে খ্যাতি অর্জন করেছে।

মগডেইল এলাকার সাধারণ মানুষ মনে করেন আবু মুসা কলিম উল্লাহকে তারা নিজ নির্বাচনী এলাকায় একজন প্রকৃত জন প্রতিনিধি হিসাবে দেখতে চান। আসন্ন মাতারবাড়ি ইউনিয়ন পরিষদ নির্বাচনে শ্রমীক নেতা মুসাকে ৮ নং ওয়ার্ডের মেম্বার হিসাবে ভোটের মাধ্যমে নির্বাচিত করতে চান বলে জানিয়েছেন।

মাতার বাড়ি মগডেইল এলাকার তরিকত, ভান্ডারী ও দরবারি পন্থীদের অভিমত হল আসন্ন ইউপি নির্বাচনে ৮ নং ওয়ার্ডে মেম্বার পদে তরিকত পন্থীরা দরবারি আবু মুসা কলিম উল্লাহকে মেম্বার হিসাবে নির্বাচিত করে অলি আল্লাহ বিরোধীদের জবাব দেওয়া হবে বলে এমনটাই জানিয়েছেন।

তারা মনে করেন, আবু মুসা কলিম উল্লাহর নেতৃত্বে মাইজ ভান্ডার শরীফের জেয়াফত থেকে শুরু করে বার্ষিক ওরস মোবারকে যোগদান করে মাতার বাড়ির দরবারি ও মাইজভান্ডারি ভক্তদের হৃদ মাজারে আসিন হয়ে আছেন। এই আসন থেকে কেউ মুসা কলিম উল্লাহকে মুছে ফেলতে পারবেনা। এর প্রমাণ পাওয়া যাবে আগামী ১১ এপ্রিল নির্বাচনের দিন। তখন বুঝতে পারা যাবে শ্রমিক নেতা আবু মুসা কলিম উল্লাহর জনপ্রিয়তা কতটুকু রয়েছে।

শুধু তাই নয় সাধারণ খেটে খাওয়া মানুষ থেকে শুরু করে সর্বস্তরের মানুষের কাছে একটিই কথা সারা মগডেইল জুড়ে চাউর হয়ে গেছে। কথাটি হল একজন সাধারণ শ্রমিক নেতা হিসাবে আবু মুসা কলিম উল্লাহ যেভাবে সাধারণ মানুষের হৃদয় জয় করেছে অন্যকোন প্রার্থী তা করতে পারেনি। অবস্থাদৃষ্টিতে মনে হচ্ছে, আগামী নির্বাচনে আবু মুসা কলিম উল্লাহর সাথেই প্রতিদ্বন্দ্বী করেই মেম্বার নির্বাচিত হতে হবে। বলতে গেলেই মূসার বিকল্প কোন প্রার্থী নেই। সুষ্ঠ নির্বাচন অনুষ্ঠিত হলে আবু মুসা কলিম উল্লাহই মেম্বার নির্বাচিত হবেন এমনটাই আশা করেন স্থানীয় ভোটারগণ।

দেখা যাক ১১ এপ্রিল পর্যন্ত নির্বাচনী হাল অবস্থা কোন দিকে যায়। এই পর্যন্ত আমাদের নির্বাচনী পরিসংখ্যান মতো দেখা যায় শ্রমিক নেতা আবু মুসা কলিম উল্লাহর অবস্থান অন্যান্য প্রার্থীর চেয়ে শক্ত অবস্থানে রয়েছে। বাকীটা সামনে বলা যাবে কার কি অবস্থা।

মো. শহীদুল্লাহ/এনপি/বাংলাপত্রিকা

খবরটি গুরুত্বপূর্ণ মনে হলে পেজে লাইক দিয়ে সাথে থাকুন