আত্রাই নদীতে ফেলা হচ্ছে আবর্জনা, দেখার কেউ নেই

মহাদেবপুর প্রতিনিধি | সারাদেশ
প্রকাশিত: সোমবার, ১৫ ফেব্রুয়ারী ২০২১ | ০৬:৫৭:৩৬ পিএম
আত্রাই নদীতে ফেলা হচ্ছে আবর্জনা, দেখার কেউ নেই
নওগাঁ জেলার মহাদেবপুর উপজেলা সদরের পশ্চিমপাশ দিয়ে বয়ে চলা আত্রাই নদীর বিভিন্ন স্থানে অবাধে ফেলা হচ্ছে হাঁস মুরগীর নাড়ি-ভুড়ি, পয়ঃবর্জ্য, স্থানীয় হোটেল-রেস্তোরাঁর পচা দুর্গন্ধযুক্ত খাবার ও ময়লা আবর্জনা।

এর ফলে একদিকে যেমন নদীর পানি দূষিত হচ্ছে, অন্যদিকে দূষিত পানির কারণে হুমকির মুখে পড়েছে জীববৈচিত্র।প্রকাশ্যে এভাবে দিনের-পর-দিন নদীর পানিতে বর্জ্য ফেলা হলেও দেখার যেন কেউ নেই।

কয়েকজন স্থানীয় বাসিন্দা জানান, নদীকে বাঁচাতে দৃশ্যমান কোন উদ্যোগ আজও নেওয়া হয়নি। দূষণের কারণে নদী তীরবর্তী এলাকার পরিবেশ মারাত্বকভাবে হুমকির মুখে রয়েছে। নদীর পানির রঙ গাঢ় কালো বর্ণের হয়ে গেছে। এতে মাছের বংশবৃদ্ধি চরমভাবে বাধাগ্রস্থ হচ্ছে। ধ্বংসের মুখে রয়েছে অন্যান্য ক্ষুদ্র প্লাংটন জাতীয় উদ্ভিদ। সম্প্রতি উপজেলা সদরের আত্রাই নদীর শ্মশানঘাট এলাকায় সরেজমিনে গিয়ে এসব চিত্র দেখা যায়।

সেখানে আরও দেখা যায়, ‘গ্রীন মহাদেবপুর ক্লিন মহাদেবপুর’ লেখা সম্বলিত একটি ভ্যানগাড়িতে করে এক ব্যাক্তি কয়েকটি বস্তায় করে মুরগীর নাড়ি-ভুড়ি, বর্জ্য, হোটেল-রেস্তোরাঁর পচা দুর্গন্ধযুক্ত খাবার ও বিভিন্ন ধরণের ময়লা আবর্জনা এনে নদীতে ফেলছেন। এইসব ভাসমান বর্জ্য থেকে খাওয়ার জন্য সেখানে বেশ কয়েকটি কুকুরের ভীড়ও লক্ষ্য করা যায়।

বছরের পর বছর এভাবে নদীতে ময়লা আবর্জনা ফেলার কারণে নদীর তলদেশ ভরাট হয়ে যাচ্ছে। স্থানীয়রা জানান, শুকনো মৌসুমে নৌ-চলাচল বাধাগ্রস্থ হওয়ার পাশাপাশি জেলেদের মাছ ধরা ও নদীর স্বাভাবিক পানি প্রবাহ ব্যাহত হচ্ছে।

অহিদুল ইসলাম/এনপি/বাংলাপত্রিকা

খবরটি গুরুত্বপূর্ণ মনে হলে পেজে লাইক দিয়ে সাথে থাকুন