নওগাঁয় বাকপ্রতিবন্ধী নারীকে ধর্ষণ, অভিযুক্ত আটক

মহাদেবপুর প্রতিনিধি | সারাদেশ
প্রকাশিত: সোমবার, ২১ ডিসেম্বর ২০২০ | ০৮:০৫:৪২ পিএম
নওগাঁয় বাকপ্রতিবন্ধী নারীকে ধর্ষণ, অভিযুক্ত আটক
নওগাঁর ধাইরহাটে বাকপ্রতিবন্ধী এক নারীকে (২৫) ধর্ষণের ঘটনা ঘটেছে। পরে ওই প্রতিবন্ধী নারীর স্বামী (২০ ডিসেম্বর) থানায় একটি ধর্ষণ মামলা দায়ের করেন। মামলা নং ২৮।

অভিযোগের প্রেক্ষিতে ওই ধর্ষককে আটক করেছে থানা পুলিশ। গত ১৯ ডিসেম্বর উপজেলার উমার ইউনিয়ের চকিলাম এলাকায় এ ঘটনা ঘটে। রবিবার মধ্যরাতে পাশ্ববর্তী উপজেলা নজিপুর থেকে ধর্ষক মোঃ দুলাল হোসেন (৪০) কে আটক করা হয়। তিনি একই এলাকার মতিয়ার হোসেনের ছেলে।

থানার মামলা সুত্রে জানা গেছে, ওইদিন রাতের খাওয়া-দাওয়া শেষে ওই প্রতবিন্ধী নারী ও তার স্বামী নিজ ঘরে শুয়ে পরেন। পরে ওই রাত আনুমানিক ১০ টার সময় প্রকৃতির ডাকে প্রতিবন্ধী নারী ঘরের বাহিরে বের হলে পূনরায় ঘরে ফিরতে দেরি হচ্ছে দেখে স্বামী মো. সোবহান (৩০) টর্চ লাইট দিয়ে স্ত্রীকে খুজতে থাকেন। একপর্যায়ে তার বাড়ির পশ্চিম পাশে ধর্ষকের খলিয়ানে ২টি খড়ের পালার মাঝে দেখেন তার স্ত্রীর পরণের জামা-কাপড় খুলে ধর্ষণ করতেছে।

এমন ঘটনা দেখে স্বামী সোবহান চিৎকার করিলে স্থানীয় ইউপি সদস্য সহ স্থানীয়রা এগিয়ে আসেন। পরে ধর্ষক পালাতে চেষ্টা করিলে স্থানীয়রা তাকে আটক করে। পালানোর চেষ্টাকালে জনগনের মাধ্যমে আসামী আঘাতপ্রাপ্ত হওয়ায় তাকে ধামইরহাট স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে চিসিৎকার জন্য ভর্তি করানো হয়। পরে সেখান থেকে তাকে উন্নত চিকিৎসার জন্য রাজশাহী হাসপাতালে পাঠানো হয়।

ধামইরহাট থানার পুলিশ পরিদর্শক (তদন্ত) মো. আবুল কালাম আজাদ জানান, প্রথমে আসামিকে  রাজশাহী হাসপতালে পাঠানো হলেও আসামির পরিবারের লোকজন তাকে বেসরকারী ভাবে চিকিৎকা প্রদান করান। পরে সেখান থেকে চিকিৎসা নিয়ে বাড়ি ফেরার পথে তাকে আটক করা হয়। বর্তমানে সে ধামইরহাট উপজেলা স্বাস্থ্যকমপ্লেক্সে ভর্তি রয়েছেন।

অহিদুল ইসলাম/এনপি/বাংলাপত্রিকা

খবরটি গুরুত্বপূর্ণ মনে হলে পেজে লাইক দিয়ে সাথে থাকুন