নন্দীগ্রামে পুকুরে বিষ প্রয়োগে ৫ লাখ টাকার মাছ নিধন

নন্দীগ্রাম (বগুড়া) প্রতিনিধি | সারাদেশ
প্রকাশিত: সোমবার, ৭ ডিসেম্বর ২০২০ | ০৫:৪২:৫৫ পিএম
নন্দীগ্রামে পুকুরে বিষ প্রয়োগে ৫ লাখ টাকার মাছ নিধন
বগুড়ার নন্দীগ্রামে পুকুরে বিষ প্রয়োগে ৫ লাখ টাকার মাছ নিধন হয়েছে।

জানা গেছে, উপজেলার ভাটগ্রাম ইউনিয়নের পালি গ্রামের আব্দুল মান্নানের ছেলে মেহেদী হাসান সোহেল একই গ্রামের মৃত বিরাজ উদ্দিনের ছেলে আব্দুস সালামের ২ বিঘা পরিমাণের একটি পুকুর ১ লাখ ৫০ হাজার টাকায় ৩ বছরের জন্য লিজ নিয়ে মাছ চাষ শুরু করে। প্রথম বছরেই ওই পুকুরে রুই, কাতলা, মৃগেল, সিলভার কার্প, শিং, মাগুর ও পাবদাসহ বিভিন্ন রকমের মাছ চাষের জন্য ২ লাখ টাকা ব্যয় করে। এতে তার পুকুরে আনুমানিক ৫ লাখ টাকার মাছ ছিলো। এমতাবস্থায় ৭ ডিসেম্বর ভোরে কেবাকারা শত্রুতামূলক ওই পুকুরে বিষ প্রয়োগ করে। এ বিষ প্রয়োগের কারণে তার পুকুরের ৫ লাখ টাকার মাছ মরে পানিতে ভেসে উঠে।

এ বিষয়ে পুকুর চাষী মেহেদী হাসান সোহেল জানান, আমি কারো কোনো প্রকার ক্ষতি করি নাই বা কারো সাথে বিরোধে জড়িনি। এরপরেও কেবাকারা শত্রুতামূলক আমার পুকুরে বিষ প্রয়োগ করে ক্ষতিসাধন করেছে।

স্থানীয় ইউপি সদস্য আব্দুল হাকিম জানান, মেহেদী হাসান সোহেল একজন ভালো মানুষ। আমার জানা মতে সে কখনো কারো ক্ষতি করেনি। কেনো যে, শত্রুতামূলক তার পুকুরে বিষ প্রয়োগ করে ৫ লাখ টাকার মাছ ক্ষতিসাধন করেছে বিষয়টি বুঝতে পারছি না। স্থানীয়রা বলেছে, ওই পুকুরে শত্রুতামূলক বিষ প্রয়োগ করে ক্ষতি সাধন করেছে।    

অদ্বৈত কুমার আকাশ/এসএ/বাংলাপত্রিকা

খবরটি গুরুত্বপূর্ণ মনে হলে পেজে লাইক দিয়ে সাথে থাকুন