কাঁদছে চাঁটগাবাসী, ভেঙে পড়েছে স্বাস্থ্য সেবা

আবদুর রহিম, বন্দর/ডবলমুরিং (চট্টগ্রাম) প্রতিনিধি | পাঠক কলাম
প্রকাশিত: রবিবার, ৭ জুন ২০২০ | ০৫:৫২:০৮ পিএম
কাঁদছে চাঁটগাবাসী, ভেঙে পড়েছে স্বাস্থ্য সেবা
চট্টগ্রাম আজ মৃত্যুপুরী। প্রতিদিন প্রতিটি পাড়া-মহল্লার মসজিদের মাইকে ভেসে আসছে মৃত্যুর শোক সংবাদ। স্বাস্থ্য সেবা না পেয়ে চট্টগ্রামবাসী প্রতিদিন হারাচ্ছে তাদের প্রিয়জনকে। চোখের জল শুকিয়ে গেছে। প্রতিটি ক্ষণে গুণছে মৃত্যুর প্রহর। প্রিয় মানুষটিকে নিয়ে দৌড়াচ্ছে এই হাসপাতাল থেকে ঐ হাসপাতালে কিন্তু করোনা রোগী সন্দেহে হাসপাতালগুলো ভর্তি নিচ্ছে না, ফলে একটুখানি অক্সিজেনের অভাবে মৃত্যুকে করুণ ভাবে আলিঙ্গন করতে হচ্ছে।
 
চট্টগ্রামে ৯১ টির মতো হাসপাতাল-ক্লিনিক রয়েছে। যার মধ্যে আইসিইউ বেডসহ সেন্ট্রাল অক্সিজেন সুবিধা আছে ২১ টির মতো। প্রশাসন থেকে জরুরি স্বাস্থ্য সেবা দেওয়ার জন্য প্রতিটি হাসপাতালকে কঠোর নির্দেশনা দিলেও তারা মানছে না, ফলে অনেক উচ্চ রক্তচাপ, ডায়বেটিস ও কিডনি রোগীসহ বিভিন্ন জঠিল রোগে আক্রান্ত মানুষ চিকিৎসা সেবা না পেয়ে মৃত্যুর মিছিলে শামিল হচ্ছে।

চট্টগ্রাম পুলিশ কমিশনারসহ স্থানীয় প্রশাসনকে বৃদ্ধাঙ্গুলী দেখিয়ে হাসপাতালগুলো রোগী ফেরত দিচ্ছে।

এদিকে আজ চট্টগ্রাম পরিবেশ ফোরামসহ বেশ কয়েকটি সংগঠন মানববন্ধনে ঘোষণা দিয়েছে বেসরকারি হাসপাতালগুলো রোগী ভর্তি না করালে আগামী ৪৮ ঘন্টার মধ্যে চট্টগ্রামকে অচল করে দেওয়া হবে। বাংলাদেশ ফেডারেল সাংবাদিক ইউনিয়নের কেন্দ্রীয় সহ-সভাপতি রিয়াজ হায়দার চৌধুরী মানববন্ধনে বক্তব্য রাখেন।
 
চট্টগ্রাম সিভিল সার্জন সেখ ফজলে রাব্বি বলেন, আজও চট্টগ্রামে ৮ জন মৃত্যুর মিছিলে যোগ হয়েছে। সাধারণ জ্বর-সর্দি-কাশির ঔষধ ফার্সেসীগুলো থেকে উধাও কিন্তু ৫/১০ গুন দামে সেই ঔষধ পাওয়া যাচ্ছে। জেলা প্রশাসনের ম্যাজিষ্ট্রেট বন্দর ও ইপিজেড থানায় অভিযান চালিয়ে অতিরিক্ত মূল্য রাখার জন্য বেশ কয়েকজন ফার্মেসী মালিককে জেল -জরিমানা করা হয়েছে।
 
করোনা রোগীর সবচেয়ে জরুরি একটুখানি অক্সিজেন, সেই অক্সিজেনের ৮ হাজার টাকার সিলিন্ডার এখন বিক্রি হচ্ছে ২২/২৩ হাজার টাকায়।

সবকিছু মিলিয়ে চট্টগ্রামবাসী আজ জীবন-মৃত্যুর সন্ধিক্ষণে দাঁড়িয়ে করুণ অসহায় ভাবে কাঁদছে।
তারা এখন মাননীয় প্রধানমন্ত্রীর কাছে আকুল আবেদন জানাচ্ছে, চট্টগ্রামের স্বাস্থ্য খাতকে উদ্ধার করে চট্টগ্রামবাসীর স্বাস্থ্য সেবা নিশ্চিত করে, যেন প্রিয় মানুষগুলো চিকিৎসা সেবা বঞ্চিত হয়ে মৃত্যুর কোলে ঢলে না পড়ে।

পাঠক কলামের কোন লেখার বিষয়ে পত্রিকা কর্তৃপক্ষ কোন দায় নিবে না। লেখক তার নিজের লেখার জন্য সম্পূর্ণ দায়ভার গ্রহণ করবেন।

খবরটি গুরুত্বপূর্ণ মনে হলে পেজে লাইক দিয়ে সাথে থাকুন