আদিল মাহমুদের ‘বিশ্বের কল্যাণে পুলিশই জনতা, জনতাই পুলিশ’

আদিল মাহমুদ | পাঠক কলাম
প্রকাশিত: শনিবার, ৯ মে ২০২০ | ০৯:৪০:১৮ পিএম
আদিল মাহমুদের ‘বিশ্বের কল্যাণে পুলিশই জনতা, জনতাই পুলিশ’
‘বিশ্বের কল্যাণে পুলিশ জনতা, জনতাই পুলিশ’
আদিল মাহমুদ


‘অষ্টাদশ পদি কবিতা’
বৈশিষ্ট্য: কবিতার নামও আঠার বর্ণে এবং প্রতি শব্দ তিন বর্ণে।

‘পুলিশ’ সম্পদ, লোকের মালের প্রথম রক্ষক,
দেশের স্বার্থেই, বিনম্র ‘পুলিশ’ রাস্তায় ঘোটক,
নর'কে বাচাতে, সশস্র ‘সর্বত্র’ পুলিশ পাবক।

‘পুলিশ’ গভীর সমুদ্র, মানুষ জনের যাজক,
"আদম" নিরস্ত্র দূর্বল, ‘পুলিশ’ তাদের চালক,
কবর দিতেও গুরুত্ব, শোভন ‘পুলিশ’ সেবক।

‘পুলিশ’সেবায়, বায়ুতে সুদৃশ্য নারীর অলক,
দূরত্ব ভুবনে বজায়, ‘পুলিশ’ প্রধান লৌকিক,
ভূখাকে বাচাতে নিমিষে, অনল ‘পুলিশ’ উদক।

সাহায্যে পৃথ্বীতে, তুরগ রঙ্গনা ‘পুলিশ’ প্রেমিক,
পুলিশে শুধুই নির্ভর, মোদের বাচার পালক,
"গগনে সমীর বিহঙ্গ, শ্রদ্ধায় ‘পুলিশ’ পুলক।

ডাকাত পাতক তটস্থ, মাথায় ‘পুলিশ’ শতক,
যথায় ‘পুলিশ’ তথায় নির্ভয়ে রাস্তায় ধার্মিক,
‘পুলিশ’ পাড়ায়, নিশ্চিন্তে ঘুমায় পিরিত সাধক।

কোভিড "মর্তের যন্ত্রনা, ‘পুলিশ’ তারই ঘাতক,
করোনা" স্তম্ভিত পীড়িত, ধরা'য় ‘পুলিশ’ ঝলক,
‘পুলিশ’ প্রণয়ে, রম্যতে মর্দিত বিশ্বই অবাক।

লেখক: ওসি (তদন্ত)
পরশুরাম মডেল থানা, ফেনী।

লেখাটি পাঠিয়েছেন আমাদের ছাগলনাইয়া প্রতিনিধি ছৈয়দ কামাল উদ্দিন।

বাংলাপত্রিকা/এসএ

খবরটি গুরুত্বপূর্ণ মনে হলে পেজে লাইক দিয়ে সাথে থাকুন