মাওনা চৌরাস্তায় যানজট নিরসনে ওসি মঞ্জুরুলের ঐকান্তিক চেষ্টা

আবুল খায়ের সোহাগ, গাজীপুর জেলা প্রতিনিধি | সারাদেশ
প্রকাশিত: বৃহস্পতিবার, ৫ মার্চ ২০২০ | ০৯:১২:৩৪ পিএম
মাওনা চৌরাস্তায় যানজট নিরসনে ওসি মঞ্জুরুলের ঐকান্তিক চেষ্টা
গাজীপুর জেলার শ্রীপুরের মাওনা ঢাকা ময়মনসিংহ মহাসড়কের নিরাপত্তায় নিয়োজিত, ট্রাফিক ব্যবস্থা বাস্তবায়নে অক্লান্ত পরিশ্রম করে যাচ্ছেন মাওনা হাইওয়ে থানার অফিসার ইনচার্জ (ওসি) মোঃ মঞ্জুরুল ইসলাম।

ওসি মোঃ মঞ্জুরুল ইসলাম এর নেতৃত্বে, পিএসআই আইয়ুব আলী, এসআই মারফত এবং এসআই শাহজাহান সহ মাওনা হাইওয়ে পুলিশ ফাঁড়ির প্রতিটি সদস্য, ট্রাফিক আইন, ট্রাফিক ব্যবস্থা বাস্তবায়নে দিন রাত কঠর পরিশ্রম করে যাচ্ছেন।

ট্রাফিক উন্নয়ন, ট্রাফিক আইন ব্যবস্থা বাস্তবায়নের ব্যাপারে জানতে চাইলে ওসি মোঃ মঞ্জুরুল ইসলাম বলেন, মাওনা চৌরাস্তার উড়াল সড়ক ঘেঁষে বসে হাজারো দোকানপাট। এতে করে জনসাধারণের চলাচলে ব্যাপক অসুবিধার সৃস্টি হয় এবং যানজট লেগেই থাকে।

তিনি আরও বলেন, ঢাকা ময়মনসিংহ মহা সড়কের পাশে বসা বিভিন্ন ভ্রাম্যমাণ বিভিন্ন অবৈধ এসব দোকানের কারনে যানজটের কবলে পরতে হয়। এসব অবৈধ দোকানপাটের জন্য মাঝে মধ্যেই বড় ধরনের দূর্ঘটনার স্বীকার হতে হয়।

মোঃ মঞ্জুরুল ইসলাম জানান, সরকার মহাসড়কে তিনচাকার ব্যাটারি চালিতো অটোরিক্সা হাইওয়ে রোডে প্রবেশ নিষেধ করেছে। তার জন্য আমরা মাইকিং এর মাধ্যমে সব সময় সতর্ক বার্তা দিয়ে থাকি। ট্রাফিক আইন, ট্রাফিক ব্যবস্থা বাস্তবায়নে আমার যা যা করতে হয় আমি করবো। যে সব মোটরসাইকেলের নাম্বার নেই, গাড়ীর কাগজ পত্র ঠিক নেই, যারা হেলমেট ছাড়া মোটরসাইকেল চালান তাদের সতর্ক করা হয়েছে। তাদের বিরুদ্ধে আইনানুগ ব্যবস্থা নেয়া হবে।

মাওনা হাইওয়ে পুলিশ ফাঁরির পিএসআই আইয়ুব আলী, এসআই মারফত এবং এসআই শাহজাহান জানান, মাওনা হাইওয়ে থানার অফিসার ইনচার্জ ওসি মোঃ মঞ্জুরুল ইসলাম স্যারের নেতৃত্বে ঢাকা-ময়মনসিংহ মহাসড়কে দুর্ঘটনা এড়াতে এবং সাধারন মানুষের সুবিধার জন্য কাজ যাচ্ছি।

তারা আরও জানান, বাস, ট্রাক, কভার ভ্যান, গতি সীমা নির্ধারণ করার জন্য এবং অ্যালকোহল ডিক্টর দিয়ে গাড়ির ড্রাইভার নেশাগ্রস্ত আছে কিনা সেটা পরীক্ষা করার জন্য এবং আমরা সব সময় পুলিশ ভ্যান দিয়ে মাইকের মাধ্যমে প্রচারণা চালিয়ে যাচ্ছি। যাতে গাড়ির গতিসীমা নিয়ন্ত্রণে রেখে গাড়ী চালায়। ব্যাটারি চালিত অটো রিক্সা, সিএনজি, মহাসড়কে না ওঠার জন্য নির্দেশ দিচ্ছি এর পরও যদি কেউ এ আইন অমান্য করে তাহলে তাদেরকে আইনের আওতায় আনা হবে।

মাওনা উরাল সেতুর নিচে যানজট, হেলমেট ছাড়া মোটরসাইকেল চালকদের ব্যাপারে জানতে চাইলে মাওনা হাইওয়ে পুলিশ ফাঁরির নায়েক মোঃ জাহিদ এবং এসআই আনিস জানান হেলমেট ছাড়া, নাম্বারবিহীন মোটরসাইকেল সহ যেকোনো কগজপত্র ছাড়া গাড়ী আটক করে রাখি এবং মামলা দেই।

বাংলাপত্রিকা/এসআর

খবরটি গুরুত্বপূর্ণ মনে হলে পেজে লাইক দিয়ে সাথে থাকুন