মারা যাওয়ার একমাসেও লাশ ফেরত পাননি সৌদি প্রবাসীর পরিবার, প্রধানমন্ত্রীর হস্তক্ষেপ কামনা

নিজস্ব প্রতিবেদক | সারাদেশ
প্রকাশিত: সোমবার, ১৬ সেপ্টেম্বর ২০১৯ | ০৫:১২:০৩ পিএম
মারা যাওয়ার একমাসেও লাশ ফেরত পাননি সৌদি প্রবাসীর পরিবার, প্রধানমন্ত্রীর হস্তক্ষেপ কামনা
চাঁদপুরের রেমিট্যান্স যোদ্ধা সুমন বরকন্দাজ। অভাবের পরিবারে স্বচ্ছলতা ফেরাতে হাঊজ ড্রাইভার ভিসায় সৌদি আরব যান চলতি বছরের ফেব্রুয়ারিতে। সৌদির নাজরান শহরে গত আগষ্ট মাসের ১৪ তারিখে হৃদরোগে আক্রান্ত হয়ে মারা যান তিনি। মারা যাওয়ার এক মাস পার হয়ে গেলেও নানা জটিলতায় তার লাশ ফেরত পাচ্ছেনা পরিবার।

এদিকে পরিবারের উপার্জনক্ষম ব্যক্তির এমন অকালে চলে যাওয়ায় হতাশার অথৈ সাগরে পড়েছে তার পরিবার। ১১ বছর বয়সী মেয়ে হিমু এবং ৭ বৃচর বয়সী ছেলে সাফায়াতকে নিয়ে কীভাবে বাকী জীবন পার করবেন সেই দুশ্চিন্তার কোন কুল কিনারা পান না স্ত্রী সুরাইয়া আক্তার।

অল্প বয়সে স্বামী হারানোর এমন শোকে দুশ্চিন্তার নতুন মোড় নিয়েছে স্বামীর লাশ বুঝে পাওয়া নিয়ে। গত প্রায় ১ মাস হয়ে গেলেও মালিক লাশ পাঠাচ্ছে না। বিভিন্ন জায়গায় ছুটাছুটি করেও কোন বিহীত করতে পারেননি তিনি। এমতাবস্থায় স্বামীর লাশ ফেরত পেতে প্রধানমন্ত্রীর হস্তক্ষেপ চেয়েছেন তিনি। সেই সাথে মালিকের কাছ থেকে পাওনা টাকা আদায়েও সংস্লিষ্টদের সহায়তা চেয়েছেন তিনি।

সুরাইয়াদের এমন দুর্দিনে রেমিট্যান্স যোদ্ধা সুমনের পরিবারের পাশে দাড়িয়েছে বাংলাদেশে রেমিটেন্স যোদ্ধা ঐক পরিষদ। পরিষদের পক্ষ থেকে ২০ হাজার টাকা আর্থিক সহায়তা দেয়া হয়েছে পরিবারটিকে।

বাংলাদেশে রেমিটেন্স যোদ্ধা ঐক্যপরিষদের সভাপতি তোফাজ্জল বিন খলিল ও সহ-সভাপতি মিঠু এবং কোষাধ্যক্ষ ও সোনারগাঁ টাইমসের সম্পাদক হাজী মোহাম্মদ শাহজালাল রোববার তার গ্রামের বাড়ি চাঁদপুরে গিয়ে এই আর্থিক অনুদান তুলে দেন। এসময় সুমনের পরিবারের পাশে থাকার কথা জানান পরিষদের নেতারা। সেই সাথে সামনের দিনগুলোতেও সুমনের পরিবারকে সহযোগিতার কথা বলেন পরিষদের সভাপতি তোফাজ্জল বিন খলিল।

এসময় বাংলাদেশে রেমিটেন্স যোদ্ধা ঐক্যপরিষদের প্রতি কৃতজ্ঞতা প্রকাশ করেন সুমনের স্ত্রী সুরাইয়া আক্তার।

বাংলাপত্রিকা/এসআর

খবরটি গুরুত্বপূর্ণ মনে হলে পেজে লাইক দিয়ে সাথে থাকুন