হোয়াটসঅ্যাপে প্রেমের পর...

বাংলা পত্রিকা ডেস্ক | ভিন্ন খবর
প্রকাশিত: মঙ্গলবার, ১৫ জানুয়ারী ২০১৯ | ১১:০৬:১৩ পিএম
হোয়াটসঅ্যাপে প্রেমের পর...
সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে পরিচয়, এরপর প্রেম, বিয়ে। হরহামেশাই হচ্ছে এমন ঘটনা। তবে আজব ব্যাপার যে ঘটনাটি ঘটলো তা হলো- নিজের চেয়ে ৪০ বছরের ছোট ফিলিপাইনের এক যুবতীকে বিয়ে করেছেন ইংল্যান্ডের ফেনল্যান্ড শহরের ৫ বারের ডেপুটি মেয়র কিট ওয়েন। তার বয়স এখন ৭৩ বছর। তিনি বিপত্নীক।

সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যম ফেসটাইম ও হোয়াটসঅ্যাপের মাধ্যমে ফিলিপাইনের যুবতী আইজা’র সঙ্গে তার পরিচয়। এক বছরের মাথায় সেই পরিচয় থেকে তাদের বিয়ে। আইজা টুরিস্ট ভিসা নিয়ে বৃটেনে চলে যান। সেখানেই তাকে স্ত্রী হিসেবে গ্রহণ করেন কিট ওয়েন।

অসম এই বিয়ের খবর প্রকাশ করেছে লন্ডনের অনলাইন ডেইলি মেইল।

প্রতিবেদনে বলা হয়, তিনি বয়সের ভারে এতটাই নুয়ে পড়েছেন যে, পুরোনো কথা খুব একটা মনে রাখতে পারেন না। নতুন স্ত্রী আইজা’কে খুঁজে পেয়েছেন ইন্টারনেটে, এ কথা তার মনে থাকলেও বলতে পারেননি কিভাবে তাকে প্রেমের প্রস্তাব দিয়েছিলেন। তবে এ দম্পতি খুব সুখে আছেন বলে জানানো হয়েছে।  

মার্চ ইন কেমব্রিজশায়ারের ডেপুটি মেয়র বিপত্নীক কিট ওয়েন। তিনি তার নতুন স্ত্রীর বয়স প্রকাশ করতে চান না। তবে এতটুকু বলেছেন তার বয়স ত্রিশের কোটায়।

এ সম্পর্কে তিনি বলেন, ফেসটাইম ও হোয়াটস্যাপে সবকিছু ঠিকঠাক মতো চলার পর আমার মনে হয়েছে সব কিছু ঠিক আছে। তার সঙ্গে আমার ব্যক্তিগতভাবে দেখা করা উচিত। এরপর আইজা’র সঙ্গে সাক্ষাত করতে তিনি চলে যান ফিলিপাইনে। এর আগে এক বছরের মধ্যে দু’জনের কারো সঙ্গে কারো দেখা সাক্ষাত নেই।

ফিলিপাইনে গিয়ে সেখানে আইজা’র পরিবার ও বন্ধুদের সঙ্গে কাটান অনেকটা সময়। তবে এ সময় আইজা’র সঙ্গে তার কোনো শারীরিক সম্পর্ক হয়নি। তারপর প্রস্তাব দিয়ে দেন আইজা’কে। আইজা’ তা মেনে নেন। ব্যাস সব ঠিকঠাক। টুরিস্ট ভিসায় বৃটেনে যান আইজা। সেখানে কিট ওয়েনের বাড়িতে তাদের বিয়ে সম্পন্ন হয়।

আগের সংসারে কিট ওয়েনের দুটি সন্তান আছে। তারা হলো লিসা ও জোনাথন। এ দুটি সন্তানের মা বেভারলি ওয়েন মারা গেছেন ২০০৮ সালে।

খবরটি গুরুত্বপূর্ণ মনে হলে পেজে লাইক দিয়ে সাথে থাকুন