কার্যনির্বাহী সদস্যদের অনুপস্থিতিতে পকেট কমিটি ঘোষণার অভিযোগ

মানিকগঞ্জ প্রতিনিধি | সারাদেশ
প্রকাশিত: বৃহস্পতিবার, ২৩ সেপ্টেম্বর ২০২১ | ১০:১০:২৪ পিএম
কার্যনির্বাহী সদস্যদের অনুপস্থিতিতে পকেট কমিটি ঘোষণার অভিযোগ মানিকগঞ্জের সদর উপজেলার হাটিপাড়া ইউনিয়নের প্রায় ৬০বছরের পুরোনো ঐতিহাসিক চৌকিঘাটা বংখুরী প্রগতি সম্মিলনি ক্লাবের সাবেক সভাপতি, মুক্তিযোদ্ধা হাটিপাড়া ইউনিয়ন আওয়ামী-লীগের সিনিয়র সহ-সভাপতি মোঃ আ মোতালেব বিশ্বাস, আহ্বায়ক কমিটির মহাসচিব মোঃ খালেক মাতুব্বর ও কার্যনির্বাহী সদস্যদের অনুস্থিতিতে   আওয়ামী লীগের নেতাকর্মীদের বাদ দিয়ে বিএনপি নেতা আব্দুল আজিজ কে কমিটির সভাপতি করে, নামমাত্র কিছু আওয়ামী লীগের নেতাকর্মী নিয়ে পকেট কমিট করার অভিযোগ উঠেছে।

এ ব্যপারে স্থানীয় লোকজনের সাথে কথা বলে জানা যায়, চৌকিঘাটা বংখুরী প্রগতি সম্মেলনি ক্লাবটি অনেক আগের সরকারের রেজিস্ট্রার ভুক্ত এই ক্লাবটি এলাকার খেলাধুলার উন্নয়নের পাশাপাশি সামাজিক কাজেও অংশ গ্রহন করে থাকে। এখানে এলাকার বিশিষ্টজন এবং আওয়ামীলীগ নেতাকর্মীদের বাদ দিয়ে পকেট কমিটি করায় ক্ষোভের সৃষ্টি হয়েছে। বিএনপি নেতা-কর্মীদের নিয়ে কতিপয় কিছু আওয়ামী লীগের নেতাকর্মী একটি পটেক কমিটি করছে।

আওয়ামীলীগের কর্মী শহিদ বিশ্বাস বলেন, আমি চৌকিঘাটা বংখুরী প্রগতি সম্মেলনি ক্লাবটির নতুন ভবন তৈরীর জন্য সব ধরনের সাহায্য সহযোগীতা করছি। এখন আমাদের অনুপস্থিতিতে বিএনপি নেতা আব্দুর আজিজকে সভাপতি, মোঃ শাহিনকে সহ সেক্রেটারী, মাসুদ রানাকে সাংগঠনিক সম্পাদক, রাজিব বিশ্বাস কোষাদক্ষ সহ আরও  নেতা-কর্মীদের নিয়ে কমিটি করা হয়েছে। তিনি এই কমিটির বিরোধিতা করে বর্তমান কমিটিকে বিলুপ্ত ঘোষণা করে নতুন করে সবাইকে নিয়ে কমিটি করবার দাবি জানান।

এ বিষয়ে স্থানীয় আওয়ামীলীগ নেতা ও সাবেক সভাপতি মুক্তিযুদ্ধা মোঃ মোতালেব বিশ্বাস জানান, আমি দীর্ঘদিন যাবত সুনামের সাথে চৌকিঘাটা বংখুরী প্রগতি সম্মেলনি  ক্লাবটি পরিচালনা করেছি। আমার অনুপস্থিতিতে পকেট কমিটি তৈরী করছে। তিনি দুঃখ প্রকাশ করে বলেন, বর্তমানে কিছু স্বার্থবাদি আওয়ামীলীগের নামধারী নেতারা বিএনপির সাথে হাত মিলিয়ে ক্লাবটি ধ্বংস করার পাইতারা করছে। যা আমাদের খেলাধুলাসহ সব ধরনের উন্নয়নমূলক কাজের জন্য খুবই ক্ষতির কারন হবে।

এদিকে, বর্তমান কমিটির সাধারন সম্পাদক মেজবাহ উদ্দিন মুন্নু জানান, আমরা সবাইকে জানিয়ে সকলের উপস্থিতির মাধ্যমে আহ্বায়ক কমিটি ভেঙ্গে দলমত নির্বিশেষে নতুন কমিটি করছি।  

এ বিষয়ে মানিকগঞ্জ সদর উপজেলার সমাজসেবা কর্মকর্তা লাবলি জানান, আমি দু'পক্ষের অভিযোগের কথা শুনেছি। দু'পক্ষকে তাদের কাগজপত্র জমা দেবার জন্য বলা হয়েছে। পরবর্তীতে আমরা পর্যালোচনা করে ব্যবস্থা গ্রহণ করব।

এস কে সুমন মাহমুদ/এনএ/দৈনিক বাংলাপত্রিকা

খবরটি গুরুত্বপূর্ণ মনে হলে পেজে লাইক দিয়ে সাথে থাকুন