টেকনাফের এনাম মেম্বার যেন মানবতার ‘ফেরিওয়ালা’

টেকনাফ প্রতিনিধি | সারাদেশ
প্রকাশিত: রবিবার, ২৮ ফেব্রুয়ারী ২০২১ | ১০:১৬:২০ পিএম
টেকনাফের এনাম মেম্বার যেন মানবতার ‘ফেরিওয়ালা’
টেকনাফ সদর ইউনিয়নের ৮ নম্বর ওয়ার্ডের গরীব দুঃখী মানুষের পরম বন্ধু, কারা নির্যাতিত সফল মেম্বার এনামুল হক এনাম। বর্তমানে তার নির্বাচনী এলাকার সমস্ত মানুষের কাছে যেন এনাম মেম্বার নামটি একটি ভালোবাসার প্রতীক। সচেতন মহলের কাছে তিনি মানবতার ফেরিওয়ালা হিসাবে পরিচিত।

টেকনাফ সদর ইউনিয়নের ৮ নং ওয়ার্ডের এনামুল হক এনাম মেম্বার সাধারণ মানুষের কাছে কেন এত জনপ্রিয়? তার জনপ্রিয়তা সম্পর্কে বিস্তারিত জানতে সরজমিন উপস্থিত হয়ে বিভিন্ন জনের সাথে কথা বলে জানা যায়, এনাম মেম্বারকে সাধারণ মানুষের ভালবাসার অন্যতম কারণ- সাধারণ মানুষের বিপদ আপদে সর্বোচ্চ আন্তরিকতার সহিত নিঃস্বার্থভাবে সাহায্যের হাত বাড়িয়ে দেন তিনি।

এনাম মেম্বারের নির্বাচনী এলাকার বাসিন্দা মোঃ শহিদুল্লাহ বলেন, এনাম মেম্বার কারাগার থেকে আসার পর থেকেই প্রতিদিন গরীব দুঃখী মানুষের কাছে গিয়ে তাদের ভাল মন্দের খবর নিচ্ছেন। আর নিঃস্বার্থভাবে নিজস্ব উদ্যোগে জন্মনিবন্ধন কার্যক্রমের যাবতীয় সেবা প্রদানের ব্যবস্থা করেছেন। যে কারণে তার ওয়ার্ডের সকল মানুষ সহজে বিনামূল্যে জম্মনিবন্ধন সেবা পাচ্ছেন। শুধু তাই নয় জন্ম নিবন্ধন পেতে যে সমস্ত প্রয়োজনীয় কাগজপত্র দরকার রয়েছে জন্ম নিবন্ধন ফরম লিখা, ফটোকপি করা সহ যা প্রয়োজন তার ব্যবস্থাও নিজ খরচে পাবার ব্যবস্থা করে দিচ্ছেন। এতে সাধারণ মানুষ তার কাজের প্রতি সন্তুষ্ট হয়ে তাকে মনে প্রাণে ভালবেসে যাচ্ছেন।  

এমন কি স্মার্ড কার্ড বিতরণের সময় নিজে উপস্থিত থেকে সবার কার্ড হাতে হাতে পৌঁছে দিচ্ছেন এই মানবতার ফেরিওয়ালা এনাম মেম্বার। যারা স্মার্ট কার্ড বিতরণের দিন কার্ড নিতে পারেননি পরের দিন বাড়ি বাড়ি গিয়ে স্মার্ট কার্ড পৌঁছে দিয়েছে। বর্তমান সময়ে এমন জনদরদি মেম্বার সচরাচর দেখা মেলা খুবই দুরূহ ব্যাপার। এনাম মেম্বারের মতো নিঃস্বার্থ ভাবে জনসেবা মূলক কর্মকাণ্ড টেকনাফ সদর ইউনিয়নের অন্য কোন ওয়ার্ডে দেখা যায়নি।

জনসাধারণের এই ভালোবাসা সম্পর্কে এনামুল হক মেম্বারের অনুভূতি সম্পর্কে জানতে চাইলে তিনি জানান, তার নির্বাচনী এলাকার জনগণের সেবা যেভাবে করা আমার দায়িত্ব ছিল আমি সেভাবে সেবা প্রদান করতে পারিনি। জেলে থাকা অবস্থায় আমি ৮ নং ওয়ার্ডের সাধারণ জনগণের রায়ে মেম্বার নির্বাচিত হয়েছি। সেদিন থেকে আমার উপর দায়িত্ব অর্পিত হয়েছে আমার এলাকার জনসাধারণের সেবা করা। আমার বাকী জীবনে মহান আল্লাহ আমাকে যতদিন বাঁচিয়ে রাখবেন ততদিন পর্যন্ত আল্লাহ যেন আমাকে সাধারণ মানুষের সেবা করার তৌফিক দান করেন। মূলত সাধারণ জনগণের সেবা করতে পারলেই আমার হৃদয়ে তৃপ্তি অনুভূত হয়। আমি সবসময়ই আমার জনগণের পাশে থাকতে চাই।

সামনে নির্বাচন করবে কিনা এমন প্রশ্নের জবাবে এনাম মেম্বার বলেন, আল্লাহর ইচ্ছায় জনগণ যদি চাই আমি আবারও নির্বাচন করব।  আমার ওয়ার্ডের জনসাধারণের সেবা করে যাবো ইনশাআল্লাহ।

আগামী ইউনিয়ন পরিষদ নির্বাচনে তিনি সকল মহলের সহযোগিতা কামনা করেন এবং তার নির্বাচনী এলাকার জনসাধারণের দোয়া ও আন্তরিক ভালোবাসার মাঝে বেঁচে থাকতে চান এনাম মেম্বার।

এনপি/বাংলাপত্রিকা

খবরটি গুরুত্বপূর্ণ মনে হলে পেজে লাইক দিয়ে সাথে থাকুন