জাতীয় দলে খেলতে কাউকে জোর করবে না বিসিবি

বাংলা পত্রিকা ডেস্ক | খেলাধুলা
প্রকাশিত: সোমবার, ২২ ফেব্রুয়ারী ২০২১ | ০৬:৩৮:১৬ পিএম
জাতীয় দলে খেলতে কাউকে জোর করবে না বিসিবি
নিউজিল্যান্ড সফরে যাচ্ছেন না বিশ্বসেরা অলরাউন্ডার। আইপিএলে খেলার জন্য শ্রীলঙ্কার বিপক্ষে টেস্টেও থাকছেন না তিনি। ওয়েস্ট ইন্ডিজের বিপক্ষে টেস্টে হোয়াইটওয়াশ হওয়ার পর এমন দু’টি গুরুত্বপূর্ণ সিরিজে সাকিবের না থাকার ব্যাপারে ‘বিব্রত’ না হলেও ‘মন খারাপ’ করেছে বোর্ড।

এখন থেকে জাতীয় দলের কোনো ম্যাচে ক্রিকেটারদের খেলানোর জন্য জোর করবে না বাংলাদেশ ক্রিকেট বোর্ড (বিসিবি)। আজ এক সংবাদ সম্মেলেনে এমনটাই জানিয়েছেন বিসিবির প্রেসিডেন্ট নাজমুল হাসান পাপন।

দুই টেস্টে ধবলধোলাইয়ের পর নিউজিল্যান্ডের মাটিতে সিরিজ খেলতে কাল রওনা দিবে টাইগাররা। আগে থেকেই তৃতীয় সন্তানের জন্য স্ত্রীর পাশে থাকতে ছুটি নিয়েছিলেন সাকিব। তবে আইপিএলে ফের কলকাতার হয়ে সুযোগ পেয়ে পরের শ্রীলঙ্কা সিরিজে টেস্ট খেলতে অনীহা প্রকাশ করেছেন দেশসেরা অলরাউন্ডার সাকিব আল হাসান।

সাকিবের বিষয়টি নিয়ে পাপন জানালেন, কাউকে জোর খেলানোর পক্ষপাতী নয় বোর্ড। বিসিবি সভাপাতি বলেন, ‘আমরা জোর করে কাউকে কোথাও পাঠাবো না। যে খেলতে চায় না, খেলবে না। আমরা চায়, সকলে খেলুক। তবে কারও যদি জাতীয় দলের চেয়ে অন্য কোনো জায়গায় খেলতে ভালো লাগে, তাহলে খেলতে পারে। এই মেসেজটা সবার জন্য। এটা কেবল সাকিবের জন্য নয়। ’

তিনি আরও বলেন, ‘এই ব্যাপারে আমরা আলোচনা করেছি। এই ব্যাপারে আমরা এখন তাদের সঙ্গে একটা চুক্তিতে যাবো। আমাদের কিন্তু আগের চুক্তি শেষ হয়েছে। এখন পর্যন্ত আমরা নতুন চুক্তি করিনি। এই চুক্তিগুলোতে আরও কিছু নতুন বিষয় যুক্ত হবে। ওখানে সব পরিস্কার লেখা থাকবে। কে কোন ফরম্যাটে খেলতে চায়, তা তাদেরকে বলতে হবে। এটাও জানতে হবে, তাদের যদি ঐ সময় অন্য কোনো জায়গায় অন্য কিছু থাকে তাহলে তারা কি জাতীয় দলে খেলবে নাকি ওখানে, তা জানাতে হবে। কারণ এই চুক্তিতে যে সই করবে তাকে কিন্তু আমরা আর যেতে দেবো না। এখন ওপেন। এতদিন ছিল এটা ব্যক্তিগতভাবে। তবে এখন আমরা এটা কাগজে-কলমে লিখিতভাবে নিয়ে নেবো। সুতরাং এখানে কারও কিছু বলার থাকবে না। ’

এছাড়া বিসিবি সভাপতি পাপন জানান, এখন থেকে যে কোন সফরে যেকোন কর্মকর্তা খেলোয়াড়দের সঙ্গে থাকবেন।

খবরটি গুরুত্বপূর্ণ মনে হলে পেজে লাইক দিয়ে সাথে থাকুন