মদের বদলে স্যানিটাইজার খেয়ে ৭ জনের মৃত্যু

বাংলা পত্রিকা ডেস্ক | আন্তর্জাতিক
প্রকাশিত: শুক্রবার, ২৭ নভেম্বর ২০২০ | ০৫:০৪:১২ পিএম
মদের বদলে স্যানিটাইজার খেয়ে ৭ জনের মৃত্যু
মদ না পেয়ে স্যানিটাইজার খেয়ে ফেলেছিলেন ৯ ব্যক্তি। কারণ, এই দ্রব্যে অ্যালকোহল রয়েছে। ফলাফল মৃত্যু। মারা গেছেন সাতজন, কোমায় আছেন দুজন। ঘটনাটি
পূর্ব রাশিয়ার ইয়াকুতিয়া অঞ্চলের একটি গ্রামের।

ব্রিটিশ সংবাদমাধ্যম ডেইলি মিররের প্রতিবেদনে বলা হয়েছে, ওই গ্রামের এক বাড়িতে বেশ কয়েকদিন আগে একটি অনুষ্ঠান আয়োজন করা হয়েছিল। কিন্তু করোনাকালীন বিধিনিষেধের কারণে আশেপাশের বার ছিল বন্ধ। সুপার শপগুলোতেও মদ পাওয়া যাচ্ছিল না। যে কারণে মদের বদলে আনা হয় স্যানিটাইজার। লেবেল ছাড়া একটি বোতলে তরল দ্রব্য ঢেলে রাখা হয়।

অনুষ্ঠান চলাকালীন ওই ৯ ব্যক্তি স্যানিটাইজার পান করে নেন। মুহুর্তেই একজন মারা যান। বিষক্রিয়ায় আক্রান্ত বাকিদের দ্রুত হাসপাতালে নিয়ে গেলেও সেখানে মারা যান ৬ জন। দুজন কোমায় চলে যান। চিকিৎসকরা বলেছেন, যারা কোমায় আছে, তাদের অবস্থা আশঙ্কাজনক। তাদের বাঁচিয়ে তোলা এখন বড় চ্যালেঞ্জ।

রাশিয়ার তদন্তকারী সংস্থা আইসিআরএফ জানিয়েছে, যে বাড়িতে অনুষ্ঠান আয়োজন করা হয়, তার কাছেই একটি দোকান থেকে ৫লিটার স্যানিটাইজারের বোতলটি কেনা হয়েছিল। ওই বাড়ি থেকে বোতলটি উদ্ধার করে পরীক্ষা করার পর দেখা যায়, স্যানিটাইজারে ৬৯ শতাংশ মিথানল রয়েছে। যা শরীরের জন্য অত্যন্ত ক্ষতিকর।

আইসিআরএফ বলছে, মিথানল খেলে মৃত্যু অনিবার্য। যে কারণেই ৭ জন মারা গেছেন। বাকি যে দুজন রয়েছেন, তাদের অবস্থা খুব ভালো নয়।

এই ঘটনার পর রবিবার রাশিয়ার বেশ কয়েকটি জায়গায় মিথানলযুক্ত স্যানিটাইজার বিক্রি বন্ধ করেছে প্রশাসন। পাশাপাশি ইয়াকুতিয়ায় এক সপ্তাহ কোনো রকম অ্যালকোহল বিক্রি নিষিদ্ধ করেছে সেখানকার প্রশাসন। এ বিষয়ে তদন্ত চলছে। কোথায় তৈরি হচ্ছে এ ধরনের স্যানিটাইজার, কারাই বা বিক্রি করছে- তা খতিয়ে দেখা হচ্ছে।

খবরটি গুরুত্বপূর্ণ মনে হলে পেজে লাইক দিয়ে সাথে থাকুন