নাঙ্গলকোটে ওড়না পেঁছিয়ে কলেজ ছাত্রীর মর্মান্তিক মৃত্যু

মোঃ বশির আহমেদ, নাঙ্গলকোট প্রতিনিধি | সারাদেশ
প্রকাশিত: সোমবার, ২৬ অক্টোবর ২০২০ | ০৯:১৯:৪৪ পিএম
নাঙ্গলকোটে ওড়না পেঁছিয়ে কলেজ ছাত্রীর মর্মান্তিক মৃত্যু
আসমাউল হুসনা ফারিহা (১৯)। স্বামী পরিত্যাক্তা মা সেলিনা আক্তারের পরম আদরের একমাত্র সন্তান। গত ১৮ বছর পূর্বে মায়ের সাথে তার বাবা মোশারফ হোসেনের বিচ্ছেদের পর মায়ের সাথে নানার বাড়ি কুমিল্লার নাঙ্গলকোটের রায়কোট উত্তর ইউনিয়নের ছুপুয়া গ্রামে অবস্থান করতেন। মা সেলিনা আক্তার মেয়ের দিকে তাকিয়ে আর বিয়ে করেননি। সেলিনা আক্তার টিউশনি করে নিজের এবং মেয়ের ভরনপোষনের ব্যয় নির্বাহ করতেন।
 
মায়ের আদরের একমাত্র সন্তান ফারিয়া সোমবার বিকেল সাড়ে তিনটায় নাঙ্গলকোটের মালিপাড়া-অলিপুর এলাকায় মদিনা ব্রিকস ম্যানুফেকচারিং এর পানি সেচের ইঞ্জিন চালিত চলন্ত স্যালো মেশিনের ফ্রাই হুইল এর রাবার ড্রিক্সের সাথে ওড়না পেঁছিয়ে শ্বাস রোধ হয়ে ঘটনাস্থলে মর্মান্তিকভাবে মৃত্যুবরণ করে।

একমাত্র মেয়েকে হারিয়ে মা সেলিমা আক্তার বার-বার জ্ঞান হারিয়ে ফেলছেন। ফারিয়া উপজেলার রায়কোট দক্ষিণ ইউনিয়নের মালিপাড়া গ্রামের মোশারফ হোসেনের মেয়ে। সে উপজেলার হেসাখাল সুহৃদ একে কলেজ অব সাইন্স এন্ড টেকনোলজিতে একাদশ শ্রেণীর শিক্ষার্থী ছিলেন। ঘটনার পর থেকে ব্রিক ফিল্ডের ম্যানেজার মোঃ রিয়াজ পলাতক রয়েছে।

সরেজমিনে জানা যায়, চট্টগ্রাম থেকে ফারিহার কাকা নাছির উদ্দিনের বাড়ি আসার সংবাদে সোমবার দুপুর সাড়ে তিনটায় ফারিহা নানার বাড়ি ছুপুয়া থেকে বাবার বাড়ি মালিপাড়া গ্রামে যাচ্ছিলেন। পথিমধ্যে ছুপুয়া-অলিপুর সড়ক পার হওয়ার সময় সড়ক সংলগ্ন পাশ্ববর্তী মদিনা ব্রিকস ম্যানুফেকচারিং এর একটি ইঞ্চিন চালিত স্যালো মেশিন দিয়ে ব্রিক ফিল্ডের পানি সেচ করছিল। স্যালো মেশিন দিয়ে পানি সেচ করার কারণে সড়কের মাটি সরে যাওয়ায় সড়ক পার হতে না ফেরে ফারিয়া চলন্ত স্যালো মেশিনের পাশ দিয়ে যাওয়ার সময় স্যালো মেশিনের ফ্রাই হুইল এর রাবার ডিক্সের সাথে তার ওড়ানা পেঁছিয়ে শ্বাস রোধ হয়ে ঘটনাস্থলে তার মৃত্যু ঘটে। এসময় তার জিহবা বের হয়ে যায় এবং ফারিয়া বাবার বাড়ি যাওয়ার জন্য তার সাথে থাকাপ কাপড়-চোপড়ের একটি প্যাকেট তার লাশের সাথে পড়ে ছিল।

নাঙ্গলকোট থানার অফিসার ইনচার্জ (ওসি) বখতিয়ার উদ্দিন চৌধুরী বলেন, নিহত ফারিয়ার পরিবারের পক্ষ থেকে লিখিত অভিযোগ ফেলে আইনগত ব্যবস্থা গ্রহণ করা হবে। ফারিয়ার লাশ উদ্ধার করা হয়েছে। ময়নাতদন্তের জন্য কুমিল্লা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে প্রেরণ করা হবে। ময়নাতদন্ত রিপোর্ট পাওয়া গেলে তদন্ত সাপেক্ষে পরবর্তী আইনগত ব্যবস্থা গ্রহণ করা হবে।

বাংলাপত্রিকা/এনপি

খবরটি গুরুত্বপূর্ণ মনে হলে পেজে লাইক দিয়ে সাথে থাকুন