"ঢাক বাজবে, আরতি হবে কিন্তু অতিরঞ্জিত কোনো কিছুই করা যাবেনা.."

সফিকুল ইসলাম শিল্পী, রাণীশংকৈল (ঠাকুরগা‍ঁও) প্রতিনিধি | সারাদেশ
প্রকাশিত: মঙ্গলবার, ১৩ অক্টোবর ২০২০ | ০৭:২৭:২৩ পিএম
"ঢাক বাজবে, আরতি হবে কিন্তু অতিরঞ্জিত কোনো কিছুই করা যাবেনা.."। করোনাকালে এবারের পুজায় প্রয়োজনীয় পুজা ছাড়া লাফালাফি, দৌড়ঝাঁপ কিছুই করা যাবেনা।

তিনি আরও বলেন "এ দেশ কোনো একক সম্প্রদায়ের দেশ নয়, এ দেশ হিন্দু মুসলিম বৌদ্ধ খ্রিস্টান সকলের...১৯৭১এ বঙ্গবন্ধুর নেতৃত্বে মহান মুক্তিযুদ্ধের মাধ্যমে আমরা বাংলাদেশের স্বাধীনতা অর্জন করেছি..."।

(১৩ অক্টোবর) মঙ্গলবার ঠাকুরগাঁওয়ের রাণীশংকৈল কলেজপাড়া মন্দির প্রাঙ্গণে ধর্ম মন্ত্রনালয় প্রদত্ত হিন্দু ধর্মীয় কল্যাণ ট্রাস্টের আয়োজনে মন্দির সংস্কার ও দুস্থদের চেক বিতরণ অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথির বক্তব্যে এসব কথা বলেন দিনাজপুর-১ আসনের সংসদ সদস্য ও হিন্দু ধর্মীয় কল্যাণ ট্রাস্টের সিনিয়র সহ-সভাপতি মনোরঞ্জন শীল গোপাল।

উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা মৌসুমী আফরিদার সভাপতিত্বে অনুষ্ঠানে ৮ ইউনিয়ন পুজা কমিটির সভাপতি সম্পাদক সহ বিশেষ অতিথির বক্তব্য দেন জেলা পুজা উদযাপন কমিটির সভাপতি অরুনাংশ দত্ত টিটো, সাধারণ সম্পাদক তপন ঘোষ, উপজেলা চেয়ারম্যান শাহরিয়ার আজম মুন্না, আ'লীগ সভাপতি সইদুল হক, রাণীশংকৈল প্রেসক্লাব প্রতিষ্ঠাতা সভাপতি অধ্যাপক আনোয়ারুল ইসলাম, প্রেসক্লাব সম্পাদক-সফিকুল ইসলাম, পুজা উদযাপন পরিষদের সাধারণ সম্পাদক সাধন বসাক প্রমুখ।

এ ছাড়াও অনুষ্ঠানে স্থানীয় গণ্যমান্য ব্যক্তি, শিক্ষক ও স্থানীয় সাংবাদিকরা উপস্থিত ছিলেন।
পরে উপজেলার ৫টি মন্দিরে, ১৫ টি পুজা মন্ডপে ও ৫ জন দুস্থকে বিভিন্ন অংকের চেক বিতরণ করা হয়। প্রসঙ্গত, এই সাথে প্রধান অতিথি মন্দিরভিত্তিক শিক্ষকদের মাঝে তাঁর ব্যক্তিগত বস্ত্র বিতরণ করেন।
                   
বাংলাপত্রিকা/এসএ

খবরটি গুরুত্বপূর্ণ মনে হলে পেজে লাইক দিয়ে সাথে থাকুন