গড্ডিমারী ইউপির উপ-নির্বাচনে বৈধ প্রার্থী হিসাবে মনোনীত শ্যামল

লুৎফর রহমান, হাতীবান্ধা প্রতিনিধি | সারাদেশ
প্রকাশিত: শনিবার, ২৬ সেপ্টেম্বর ২০২০ | ০৫:৫৯:০৩ পিএম
গড্ডিমারী ইউপির উপ-নির্বাচনে বৈধ প্রার্থী হিসাবে মনোনীত শ্যামল
লালমনিরহাট জেলার হাতীবান্ধা উপজেলায় করোনায় আক্রান্ত হয়ে গড্ডিমারী ইউপি চেয়ারম্যান ডাঃ আতিয়ার রহমান ও পাটিকাপাড়া ইউপি চেয়ারম্যান সফিউল আলম রোকন মারা যায়। এতে উপজেলার দুই ইউপির চেয়ারম্যান পদ শুন্য হয়ে পড়ে।

সারাদেশের ন্যায় হাতীবান্ধা উপজেলার এই দুই ইউনিয়নের চেয়ারম্যান মারা যাওয়ায় নির্বাচন কমিশন ঘোষিত আগামী ২০ অক্টোবর উপ-নির্বাচন অনুষ্ঠিত হবে।

প্রয়াত চেয়ারম্যান ডাঃ আতিয়ার রহমানের সুযোগ্য সন্তান, হাতীবান্ধা উপজেলা আ’লীগের সাংগঠনিক সম্পাদক গড্ডিমারী ইউপির উপ-নির্বাচনে নৌকা মার্কার চেয়ারম্যান প্রার্থী আবু বক্কর সিদ্দিক শ্যামল।

এ বিষয়ে গড্ডিমারী ইউপির উপ-নির্বাচনে নৌকা মার্কার চেয়ারম্যান প্রার্থী আবু বক্কর সিদ্দিক শ্যামল বলেন, আমার বাবা প্রয়াত চেয়ারম্যান ডাঃ আতিয়ার রহমান একজন উন্নয়নবান্ধব চেয়ারম্যান ছিলেন।

গড্ডিমারী ইউনিয়ন একটি তিস্তার ভাঙ্গন কবলিত ইউনিয়ন। এখানকার মানুষের সুখ দুঃখে আমরা ছিলাম এবং থাকবো। আগামী ২০ অক্টোবর উপ-নির্বাচনে আমি চেয়ারম্যান পদে নৌকা মার্কার প্রার্থী হয়ে গড্ডিমারী ইউনিয়নবাসীর দোয়া ও সহযোগীতা চাই।

সরেজমিনে গিয়ে দেখা যায়, তিস্তার করাল গ্রাসের সময় প্রয়াত চেয়ারম্যান ডাঃ আতিয়ার রহমান ও গড্ডিমারী বীর মুক্তিযোদ্ধা মোতাহার হোসেন কলেজের অধ্যক্ষ আবু বক্কর সিদ্দিক শ্যামল তিস্তাপাড়ের মানুষের জন্য আজীবন কাজ করে গেছেন।

কথা হয় গড্ডিমারী ইউনিয়ন বাংলাদশ আওয়ামী-লীগ শাখার সাধারণ সম্পাদক এলিজা ইয়াসমিনের সাথে তিনি জানান, চেয়ারম্যান পরিবার গড্ডিমারীবাসীর গর্ব।

কারণ ওই পরিবারটি গড্ডিমারীর তিস্তা পাড়ের মানুষের দুঃখ ঘোচাতে ও তাদের সহযোগীতা করে কাজ করে যাচ্ছেন।

তাই এই উপনির্বাচনে উন্নয়ের নৌকা মার্কার চেয়ারম্যান প্রার্থী আবু বক্কর সিদ্দিক শ্যামলের জন্য সবাই দোয়া ও আপনাদের মুল্যবান সমর্থন দিয়ে সহযোগীতা করবেন ইনশাআল্লাহ।

গড্ডিমারী ইউনিয়ন শাখার আওয়ামীলীগের মোঃ লুৎফর রহমান সাংগঠনিক সম্পাদক জানান, শুধু গড্ডিমারী ইউনিয়নের কথা বললে কম বলা হবে, কেননা আওয়ামী লীগ সরকার ক্ষমতায় আসার পর আবু বক্কর সিদ্দিক শ্যামল বীর মুক্তিযোদ্ধা মোতাহার হোসেনের পাশে থেকে প্রতিটা উন্নয়ন কাজের সাথে তিনি প্রতক্ষ্যভাবে সম্পৃক্ত ছিলেন।

শনিবার সকালে উপজেলা নির্বাচন অফিসার আবু বক্কর সিদ্দিক শ্যামলকে বৈধ প্রার্থী হিসাবে ঘোষণা দেন। প্রতিটি শিক্ষাপ্রতিষ্ঠানে তার অবদান এমনকি দুঃখে সুখে সবখানে তার বিচরণ তাই আগামী ২০ অক্টোবর উপ-নির্বাচনে গড্ডিমারীবাসী উন্নয়নের মার্কা নৌকায় ভোট দিয়ে আবু বক্কর সিদ্দিক শ্যামলকে বিজয়ী করবে ইনশাআল্লাহ।

বাংলাপত্রিকা/এসএ

খবরটি গুরুত্বপূর্ণ মনে হলে পেজে লাইক দিয়ে সাথে থাকুন