‘আগষ্ট মাস এলেই চোখে জল ধরে রাখতে পারিনা’

এস এম মনিরুল ইসলাম, সাভার প্রতিনিধি | সাক্ষাৎকার
প্রকাশিত: রবিবার, ৩০ আগস্ট ২০২০ | ১১:৪১:১৮ এএম
‘আগষ্ট মাস এলেই চোখে জল ধরে রাখতে পারিনা’
যার নেতৃত্বে স্বাধীন বাংলাদেশ পেলাম, যার সাহসী ভাষনে অস্ত্র ধরেছিলাম, স্বাধীনতা যুদ্ধ করেছিলাম, সেই মহান নেতা হাজার বছরের শ্রেষ্ঠ বাঙালি জাতির জনক বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের ৪৫ তম শাহাদাত বার্ষিকী ১৫-ই আগষ্ট।

প্রকৃতির নিয়ম অনুযায়ী সকলকেই একদিন চলে যেতে হবে কিন্তু মহান নেতা, যিনি জীবনের সমস্ত সময় টুকু মানুষের কল্যানে কাজ করেছেন, মানুষের অধিকার আদায়ে জেল জুলুম অত্যাচার সহ্য করে দীর্ঘ আন্দোলন সংগ্রাম করে এদেশের স্বাধীনতা এনে দিলেন সেই মানুষটির কিনা মরতে হলো এদেশের নরপশুনামক কিছু মানুষের হাতে। আগষ্ট এলে তাই দু'চোখে জ্বল ধরে রাখতে পারিনা বলছিলেন, বাংলাদেশ আওয়ামী মুক্তিযুদ্ধ লীগ ঢাকা জেলা শাখার সাংগঠনিক সম্পাদক ও সাভার উপজেলা শাখার সাধারণ সম্পাদক জাহাঙ্গীর হোসেন ভূঁইয়া।

তিনি আরও বলেন, আমাদের প্রিয় নেতা জাতির জনক বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান, শেখ কামাল, শেখ জামাল, শেখ রাসেল, সহধর্মিণী শেখ ফজিলাতুন্নেসা সহ পরিবারের সকলকে নির্মমভাবে হত্যা করেছে। যারা দেশ বিরোধী ষড়যন্ত্র করেছে, আমাদের জাতির পিতাকে নির্মমভাবে হত্যা করেছে, যারা হত্যাকাণ্ড চালিয়েছে এদের মধ্যে অনেকে এখনো বিদেশে পালিয়ে আছে তাদেরকে ফিরিয়ে আনার প্রক্রিয়া চলছে। জননেত্রী মাননীয় প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার কাছে প্রাণের দাবি যত শিঘ্রই সেইসব খুনিদের বাংলার মাটিতে ফিরিয়ে এনে তাদের দৃষ্টান্তমূলক শাস্তি তথা ফাঁসি কার্যকর করা হবে তত শীঘ্র এদেশ কলংক মুক্ত হবে।

তিনি কান্নাবিজড়িত কন্ঠে আরও বলেন, আওয়ামী লীগকে নেতৃত্ব শুন্য করতে ২০০৪ সালের  ২১ সে আগষ্ট মাননীয় প্রধানমন্ত্রীর উপরে যে বর্বোরোচিত গ্রেনেড হামলা চালিয়েছিল আল্লাহর অশেষ রহমতে এবং বাংলাদেশের কোটি মানুষের দোয়ায় তিনি  বেঁচে যান এবং তার বলিষ্ঠ নেতৃত্বে বাংলাদেশ আজ  উন্নত দেশে রুপান্তরিত হয়েছে।আগষ্ট মাস আমাদের শোকের মাস।
আপনারা জানেন, এই শোকের মাসে মাসব্যাপী বিভিন্ন কার্যক্রম সুন্দরভাবে সুসম্পন্ন করে চলেছে আওয়ামীলীগ সহ বিভিন্ন অঙ্গ সংগঠন। দেশের ইতিহাসের ঘৃণ্য ও নৃশংস হত্যাকাণ্ডের দিন ১৫ আগস্ট, জাতীয় শোক দিবস। ১৯৭৫ সালের এই দিনে ঘাতক চক্রের হাতে বাঙালি জাতির মুক্তি আন্দোলনের মহানায়ক, নিপীড়িত মানুষের মহান নেতা স্বাধীন বাংলাদেশের স্থপতি হাজার বছরের শ্রেষ্ঠ বাঙালি জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানকে স্বপরিবারে হত্যা করা হয়। এই ষড়যন্ত্র- কারীরা চেয়েছিল বাংলাদেশ থেকে বঙ্গবন্ধুর নাম মুছে দিতে তারই ধারাবাহিকতায় মুক্তিযুদ্ধের চেতনা বিরোধী শক্তি ২০০৪ সালে জাতির পিতার সুযোগ্য কন্যা শেখ হাসিনা সহ আওয়ামী লীগেকে নেতৃত্বশূন্য করতে চেয়েছিল। আল্লাহর রহমতে তাদের অপচেষ্টা ব্যর্থ হয়েছে। বাঙালি জাতি তাদের জাতির পিতার নাম মুছে দিতে দেয়নি তাদের অন্তরে আজও বঙ্গবন্ধুকে লালন করে চলেছে।

জাতির পিতার সুযোগ্য কন্যা মাননীয় প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার হাত ধরে বাংলাদেশে আজ উন্নয়নশীল দেশে পরিণত হয়েছে এবং বাঙালি জাতি আজ বিশ্বের দরবারে মাথা উঁচু করে দাঁডিয়েছে। শোকাবহ আগষ্ট মাসের শোককে শক্তিতে পরিনত করে বঙ্গবন্ধু কন্যা মাননীয় প্রধানমন্ত্রী জননেত্রী শেখ হাসিনার হাতকে শক্তিশালী করে শকল অপশক্তি মোকাবিলা করে দেশের উন্নয়নে কাজ করে যেতে হবে তবেই জাতির জনক বঙ্গবন্ধুর স্বপ্নের সোনার বাংলা গড়ে তোলা সম্ভব হবে।

বাংলাপত্রিকা/এনপি

খবরটি গুরুত্বপূর্ণ মনে হলে পেজে লাইক দিয়ে সাথে থাকুন