ঠাকুরগাঁওয়ে মুক্তিযোদ্ধার কন্যাকে হত্যা ও ধর্ষণ চেষ্টার অভিযোগ

মো. আসাদুজ্জামান শামিম, ঠাকুরগাঁও প্রতিনিধি | সারাদেশ
প্রকাশিত: শুক্রবার, ২৮ আগস্ট ২০২০ | ০৫:৪২:২০ পিএম
ঠাকুরগাঁওয়ে মুক্তিযোদ্ধার কন্যাকে হত্যা ও ধর্ষণ চেষ্টার অভিযোগ
ঠাকুরগাঁও সদর উপজেলার হরিহরপুর গ্রামে প্রয়াত এক বীর মুক্তিযোদ্ধার মেয়ে পুরবী রানী (৩১) কে মারপিট, হত্যা ও ধর্ষণ চেষ্টার অভিযোগ পাওয়া গেছে।

বৃহস্পতিবার বিকেলে প্রতিবেশী জগদিশের নেতৃত্বে একদল সন্ত্রাসী এ ঘটনা ঘটিয়েছে বলে জানা যায়।

জানা যায়, দীর্ঘদিন যাবত ছোট একটি রাস্তা নিয়ে জগদিশের সাথে বিরোধ চলছিল পুরবীদের। ওই দিন প্রয়াত বীর মুক্তিযোদ্ধা সন্তারাম সিংহের মেয়ে পুরবী রানী বাড়িতেই ছিলেন। হঠাৎ প্রতিবেশী তারিনী মহনের ছেলে জগদিশ, সুভাস, নরেন, গিরেন, বিবেকানন্দ, অশোক, গীতা, লাভলি, রীনা, সুলতানাসহ আরও বেশ কয়েকজনকে নিয়ে পুরবিদের বাড়িতে প্রবেশ করে হামলা চালায়। এ সময় সন্ত্রাসীরা পুরবীকে গুম ও ধর্ষন করে প্রাণনাশের হুমকি দিতে থাকে। এক পর্যায়ে পুরবীবে বেধরক পিটিয়ে গলা চিপে ধরলে সে অজ্ঞান হয়ে গেলে তারা পালিয়ে যায়। এ সময় বোনকে বাঁচতে গিয়ে আহত হয় পূরবী রাণীর ছোট ভাই নিরেন রায়ও। পরে পুলিশকে খবর দিলে তারা গিয়ে পুরবী ও তার ভাইকে আহত অবস্থায় উদ্ধার করে হাসপাতালে নিয়ে যায়।
 
পূরবী রাণী বলেন, আমার বাবা মারা যাওয়ার পর থেকেই আমাদের দেড় কাঠা জমির উপর লোভ পরে প্রতিবেশী জগদিশের। সে বিভিন্ন সময় আমাকে ধর্ষন করে লাশ গুম করে দেওয়ার হুমকিও দিয়েছিল।

এ ব্যাপারে সদর থানার অফিসার ইনচার্জ (তদন্ত) গোলাম মর্তূজা জানান, অভিযোগ পাওয়ার পর পরই উপ পরিদর্শক আনিসুর রহমান ঘটনাস্থলে গিয়ে পুরবী ও তার ভাইকে উদ্ধার করে চিকিৎসার জন্য হাসপাতালে নিয়ে যায়। এ ব্যাপারে প্রয়োজনীয় আইনগত ব্যবস্থা গ্রহন করা হবে বলে জানান তিনি।

বাংলাপত্রিকা/এনপি

খবরটি গুরুত্বপূর্ণ মনে হলে পেজে লাইক দিয়ে সাথে থাকুন