দ্বিতীয় বিয়ে সম্পন্ন করলেন মিথিলা, এবার হানিমুন

বাংলা পত্রিকা ডেস্ক | বিনোদন
প্রকাশিত: শুক্রবার, ৬ ডিসেম্বর ২০১৯ | ১১:১৫:৫৯ পিএম
দ্বিতীয় বিয়ে সম্পন্ন করলেন মিথিলা, এবার হানিমুন
অবশেষে নানা আলোচনা-সমালোচনা শেষে দ্বিতীয় বারের মত বিয়ে করলেন বাংলাদেশী মডেল-অভিনেত্রী রাফিয়া রশিদ মিথিলা। কলকাতার জনপ্রিয় এই পরিচালক সৃজিতের গলায় মালা পরিয়ে দিলেন মিথিলা।

কলকাতায় মিথিলার নতুন স্বামীর বাড়িতেই শুক্রবার সন্ধ্যায় তাদের বিয়ে অনুষ্ঠিত হয়।

মিথিলা জানান, সৃজিতের বাড়িতে ঘরোয়া পরিবেশেই অনুষ্ঠিত হয় তাদের বিয়ে। কাছের মানুষদের নিয়ে শুধু রেজিস্ট্রি হয়। মেয়ে আইরাকে নিয়ে আগে থেকেই কলকাতায় সৃজিতের বাড়িতে অবস্থান করছিলেন মিথিলা। অন্যদিকে বিয়ের আগেই ঢাকা থেকে কলকাতায় পাড়ি জমান মিথিলার মা-বাবাসহ আত্মীয়রা। মিথিলা জানান, হবু জামাইয়ের জন্য ঢাকা থেকে তারা ইলিশ মাছসহ নানা কিছু নিয়ে যান।

বিয়েতে মিথিলা আড়ংয়ের লাল জামদানি শাড়িতে সেজেছিলেন। কপালে ছিল ছোট্ট টিপ। কানে-গলায় মানানসই গয়না। সৃজিত পরেছিলেন লাল জহরকোট এবং কালো পাঞ্জাবি।

মিথিলা জানিয়েছেন, হানিমুনের উদ্দেশ্যে না গেলেও নিজের পড়াশোনার কাজে জেনেভা যাবেন। সঙ্গে সৃজিতও থাকবেন। শনিবার সকালে তারা জেনেভায় যাবেন বলে জানা যায়। সেখানে একটি বিশ্ববিদ্যালয়ে মিথিলা পিএইচডি রেজিস্ট্রেশন করবেন। পাশাপাশি সৃজিতকে নিয়ে ঘুরে বেড়াবেন। সপ্তাহ খানেক পর ফিরে আসবেন তারা।

এর আগে ২০০৬ সালের ৩ আগস্ট মিথিলা ভালোবেসে বিয়ে করেন গায়ক ও অভিনেতা তাহসানকে। আইরা তেহরীম খান তাহসান-মিথিলা দম্পতির একমাত্র সন্তান। সোশ্যাল মিডিয়ায় আদর্শ কাপল হিসেবে পরিচিত তাহসান-মিথিলা জুটির বিচ্ছেদ ঘটে ২০১৭ সালে।

এরপর এক ঘনিষ্ঠ বন্ধুর অনুষ্ঠানে সৃজিত মুখার্জির সঙ্গে মিথিলার পরিচয় হয়। সেখান থেকেই শুরু হয় ফেসবুকে কথাবার্তা। এরপর বন্ধুত্ব। তারপর প্রেম। কলকাতার রাস্তায় একসঙ্গে ঘোরাঘুরি। তাদের এই প্রেম আর গোপন থাকে না। গণমাধ্যমের খবরের শিরোনামে আসেন তারা। বারবার নিজেদের প্রেমের কথা অস্বীকার করে আসছিলেন। কিন্তু কলকাতা ও ঢাকায় তাদের ঘন ঘন যাতায়াত। একসঙ্গে অনুষ্ঠানে যাওয়া সবকিছুই ভক্তদের সন্দেহকে তীব্র করে তুলেছিল। বাংলাদেশের ঢাকার বেশ কিছু জায়গাতেও সৃজিত মিথিলাকে একসঙ্গে দেখা গেছে। সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে ভাইরাল হয়েছিল তাদের একসঙ্গে কাটানো বিভিন্ন মুহূর্তের ছবিও। কিন্তু তবুও মুখে কুলুপ এঁটে ছিলেন দু’জনে। শুধু তাই নয়, সে সময় আরও কয়েকজনের সঙ্গে মিথিলার প্রেমের গুঞ্জন শোনা যায়। এদিকে সৃজিতের সঙ্গে বিয়ের ঘোষণার পর তাদের প্রেমের বিষয়টিকে গুঞ্জন হিসেবে জাহির করার কারণ জানতে চাইলে মিথিলা জানান, ব্যক্তিগত বিষয়কে ব্যক্তিগত হিসেবেই রাখতে চেয়েছিলেন তারা।

বাংলাপত্রিকা/ওএন

খবরটি গুরুত্বপূর্ণ মনে হলে পেজে লাইক দিয়ে সাথে থাকুন