মাদ্রাসা ছাত্রীকে যৌন নিপীড়ন: আটক ৪

ফরিদ উদ্দিন বিপু, কলাপাড়া (পটুয়াখালী) প্রতিনিধি | সারাদেশ
প্রকাশিত: সোমবার, ২ ডিসেম্বর ২০১৯ | ১১:০৫:৫১ পিএম
মাদ্রাসা ছাত্রীকে যৌন নিপীড়ন: আটক ৪
কলাপাড়ায় নবম শ্রেণির এক মাদ্রাসা শিক্ষার্থীকে যৌন নিপীড়নের দায়ে চার যুবককে গ্রেফতার করে পুলিশে সোদর্প করেছে স্থানীয় জনতা।

সোমবার সন্ধ্যায় উপজেলার নীলগঞ্জ ইউনিয়নের উমেদপুর স্ট্যান্ড থেকে তাদের আটক করা হয়।

আটককৃতরা হলেন- সরোয়ার হোসেন(২০), নোমান গাজী(২০), হাসান গাজী(২১) ও নাজমুল (২০)। এদের সবার বাড়ি নীলগঞ্জ ইউনিয়নের কুমিরমারা গ্রামে।

এঘটনায় ওই শিক্ষার্থীর পিতা বাদী হয়ে নারী ও শিশু নির্যাতন দমন আইনে আটজনকে আসামী করে কলাপাড়া থানায় একটি মামলা করেছেন। তবে এ ঘটনায় জড়িত মূল হোতাদের এখনও গ্রেফতার করতে পারেনি পুলিশ।

স্থানীয় ও মামলার বিবরন সূত্রে জানা যায়, দীর্ঘদিন ধরে ওই শিক্ষার্থী মাদ্রাসায় যাওয়া আসার পথে প্রেমের প্রস্তাব দিয়ে আসছিল মামুন। বিষয়টি ওই শিক্ষার্থীর বাবা মাদ্রাসার প্রিন্সিপালসহ স্থানীয় কয়েকজনকে অবহিত করেন। ঘটনার দিন রবিবার পরীক্ষায় অংশগ্রহনের জন্য বাড়ি থেকে মাদ্রাসায় যাওয়ার পথে মামুন মিয়া ওই শিক্ষার্থীকে কু-প্রস্তাব দেয় এবং অশ্লিল অঙ্গভঙ্গি করে। পরীক্ষা শেষে বাড়ি ফেরার পথে মামুনসহ তার সহযোগিরা শিক্ষার্থীর ওপর যৌন নির্যাতন চালায়। পরে বিকালে স্থানীয় জনতা তাদের আটক করে পুলিশে খবর দেয়।

তবে দৌলতপুর ছালেহিয়া ইসলামিয়া আলিম মাদ্রাসার অধ্যক্ষ (ভারপ্রাপ্ত) মাওলানা মোস্তাফিজুর রহমান জানান, মামুন, জোবায়ের এবং মিরাজকে এ ঘটনায় প্রথমে আটক করে ছাত্ররা। আমি যতদুর জানি ছেলেরা বর্তমানে থানায় আটক রয়েছে। তাদের খবর দিয়ে আনা হয়েছিল মামুন মিরাজদের ছাড়াতে। পড়ে ঘটনা চক্রে এসে ওড়া হয়তো ফেসে গিয়েছে। মূলত ওই ছাত্রী ও মামুন একই প্রতিষ্ঠানের শিক্ষার্থী।

এদিকে দৌলতপুর ছালেহিয়া ইসলামিয়া আলিম মাদ্রাসার প্রধান উপদেষ্টা ও শিক্ষাঅনুরাগী মো. নূর-ই-আলম আজাদ জানান, এঘটনায় জড়িত শিক্ষার্থীদের প্রাথমিকভাবে বহিষ্কার করা হয়েছে। সুষ্ঠু তদন্তের মাধ্যমে অভিযোগ প্রমানিত হলে স্থায়ী ভাবে বহিস্কার করা হবে।

কলাপাড়া থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা(ওসি) মনিরুল ইসলাম জানান, স্থানীয়রা যৌন নীপিড়নের সঙ্গে জড়িত চার জনকে আটক পুলিশের কাছে হস্তান্তর করে। মামলায় চারজনকে গ্রেফতার দেখানো হয়েছে। অন্যান্য আসামীদের গ্রেফতার অভিযান অব্যহত রয়েছে।

বাংলাপত্রিকা/এসআর

খবরটি গুরুত্বপূর্ণ মনে হলে পেজে লাইক দিয়ে সাথে থাকুন