অভয়নগর স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে গড়ে উঠেছে যানবাহনের অবৈধ স্ট্যান্ড, মানছেনা নিষেধাজ্ঞা

মোঃ দেলোয়ার হোসেন, নওয়াপাড়া (যশোর) প্রতিনিধি | বাংলা পত্রিকা স্পেশাল
প্রকাশিত: বৃহস্পতিবার, ২১ নভেম্বর ২০১৯ | ০১:০৩:০৬ এএম
অভয়নগর স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে গড়ে উঠেছে যানবাহনের অবৈধ স্ট্যান্ড, মানছেনা নিষেধাজ্ঞা
অভয়নগর উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সের প্রধান ফটকের গুরুত্বপূর্ণ স্থান দখল করে গড়ে তোলা হয়েছে যানবাহন রাখার অবৈধ স্ট্যান্ড। যানবাহনের চালকেরা মানছেন না হাসপাতাল কর্তৃপক্ষের নিষেধাজ্ঞার নির্দেশনা। প্রতিনিয়ত ভোগান্তির শিকার হচ্ছেন মুমূর্ষু রোগী ও পথচারীরা। ব্যবস্থা গ্রহণের আশ্বাস দিয়েছেন অভয়নগর উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা। নওয়াপাড়া হাইওয়ে থানা কর্তৃপক্ষ বলছে অচিরেই অভিযান চালিয়ে ওইসব যানবাহনের বিরুদ্ধে আইনগত ব্যবস্থা গ্রহণ করা হবে।

জানা যায়, অভয়নগর উপজেলার প্রায় পাঁচ লাখ মানুষের জন্য রয়েছে একটিমাত্র সরকারি হাসপাতাল। নওয়াপাড়া পৌরসভাসহ আট ইউনিয়নের হতদরিদ্র মানুষের সেবা পাওয়ার একমাত্র স্থান হচ্ছে এই অভয়নগর উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্স। যেখানে ইনডোর ও আউটডোরে প্রতিদিনি রোগী দেখা হয় হাজারের উপরে। সেই হাসপাতালের প্রধান ফটকের পাশে পরিবার পরিকল্পনার স্টোর রুম, জরুরী বিভাগ ও বিষপানের রোগীর ওয়াশ রুমের সামনে যত্রতত্র যানবাহন রেখে অবৈধ স্ট্যান্ড গড়ে তুলেছেন গাড়ীর চালকেরা।

সরেজমিনে বুধবার দুপুরে গিয়ে দেখা যায়, হাসপাতালটিকে যেন বিভিন্ন যানবাহনে ঘিরে ধরেছে। প্রধান ফটকের বাম পাশে স্টোররুম, জরুরী বিভাগ ও ওয়াশরুমের সামনে তিনটি অ্যাম্বুলেন্স ও তিনটি মিনি ট্রাক দাঁড়িয়ে রয়েছে। এসময় ওই যানবাহনের একজন চালককেও খুঁজে পাওয়া যায় নি।

হাসপাতালে সেবা নিতে আসা গুয়াখোলা গ্রামের ইয়াদ ও ইমন জানান, হাসপাতালের মুখে যানবাহন স্ট্যান্ড গড়ে ওঠায় আমরা হাসপাতালের জরুরী বিভাগ খুঁজে না পেয়ে ভোগান্তির শিকার হয়েছি।

একই ধরনের অভিযোগ অনেক রোগীদের।

উপজেলা স্বাস্থ্য ও পরিবার পরিকল্পনা অফিসার ডা. এসএম মাহমুদুর রহমান রিজভী জানান, বারবার নিষেধ করা সত্বেও যানবাহনগুলো যত্রতত্রভাবে এক শ্রেণির চালকেরা রেখেই চলেছেন। ইতোপূর্বে হাসপাতাল চত্বরে কোন প্রকার যানবাহন না রাখার জন্য নোটিশ টানানো হলেও তা মানছেন না চালকেরা। বিষয়টি উপজেলা নির্বাহী অফিসার ও নওয়াপাড়া হাইওয়ে থানার ওসিকে জানানো হয়েছে।

এ ব্যাপারে নওয়াপাড়া হাইওয়ে থানার ওসি মো. নজরুল ইসলাম জানান, যে কোন মুহুর্তে হাসপাতালের ভিতরে অবৈধভাবে রাখা যানবাহনের বিরুদ্ধে অভিযান চালানো হবে।

উপজেলা নির্বাহী অফিসার মো. নাজমুল হুসেইন খাঁন বলেন, বিষয়টি খুবই গুরুত্বপূর্ণ, দ্রুত আইনগত ব্যবস্থা গ্রহণ করা হবে।

বাংলাপত্রিকা/আরইউ

খবরটি গুরুত্বপূর্ণ মনে হলে পেজে লাইক দিয়ে সাথে থাকুন