শান্তিপূর্ণভাবে শেষ হল ইবির ভর্তি পরীক্ষা

খলিলুর রহমান জীম, ইবি প্রতিনিধি | শিক্ষা ও ক্যাম্পাস
প্রকাশিত: বুধবার, ৬ নভেম্বর ২০১৯ | ১০:২৪:২৯ পিএম
শান্তিপূর্ণভাবে শেষ হল ইবির ভর্তি পরীক্ষা
ইসলামী বিশ্ববিদ্যালয়ের (ইবি) ২০১৯-২০ শিক্ষাবর্ষের ভর্তি পরীক্ষা অত্যন্ত শান্তিপূর্ণ ও  উৎসবমুখর পরিবেশে সম্পন্ন হয়েছে।

বুধবার ‘ডি’ ইউনিটের ভর্তি পরীক্ষার মধ্য দিয়ে শেষ হয়।

সরেজমিন দেখা যায়, এ বছর ভর্তি পরীক্ষা মোট ছয়টি কেন্দ্রে অনুষ্ঠিত হয়। কোনো ধরনের অপ্রীতিকর ঘটনা ছাড়াই বিশ্ববিদ্যালয় কর্তৃপক্ষের কঠোর নিরাপত্তার মধ্য দিয়ে সুন্দর ব্যবস্থাপনা গ্রহণের কারণে এ বছর ভর্তি পরীক্ষা অত্যন্ত শান্তিপূর্ণ পরিবেশে ত্রুটিমুক্তভাবে সম্পন্ন হয়েছে। এ ছাড়াও প্রক্টরিয়াল বডির সার্বক্ষণিক তৎপরতা, ভ্রাম্যমান আদালত, আইন-শৃঙ্খলা বাহিনী, বিএনসিসি ও রোভার স্কাউটস এর সহযোগিতায় এবং গোয়েন্দা সংস্থাগুলোর কড়া নজরদারির কারণে কোন রকম প্রশ্নফাঁস, প্রক্সি ও জালিয়াতির মতো কোন বিছিন্ন ঘটনা ঘটেনি।

এবছর মোট ২৩০৫ আসনের বিপরীতে আবেদন করেন ৬১ হাজার ৯৪২ শিক্ষার্থী। আসন প্রতি ২৭ জন পরীক্ষার্থী ভর্তি যুদ্ধে জন্য আবেদন পড়লেও পরীক্ষায় অংশ নেয় গড়ে প্রায় ৮৯ শতাংশ পরীক্ষার্থী। আগামী ১৫ নভেম্বরের মধ্যে সব ইউনিট গুলোর ফলাফল প্রকাশিত হবে এবং নতুন ভর্তিকৃত শিক্ষার্থীদের  ক্লাস আগামী ১১ জানুয়ারি থেকে শুরু হবে বলে বিশ্বিবদ্যালয়ের রেজিস্ট্রার সূত্রে জানা যায়।

রবিবার (৪ নভেম্বর) প্রথম দিনে 'এ' ও 'সি' ইউনিটের ভর্তি পরীক্ষা সম্পন্ন হয়। ঐ দিন সকাল সাড়ে ৯টায় 'এ' ইউনিটের অধীনে ধর্মতত্ত্ব অনুষদের পরীক্ষা দিনের প্রথম শিফটে অনুষ্ঠিত হয়। ইউনিটটিতে মোট ২৪০টি আসনের বিপরীতে ২২২৩ জন পরীক্ষার্থী আবেদন করেন এবং সেখানে পরীক্ষার্থীদের উপস্থিতির হার ছিল ৮৫ শতাংশ।

একই দিনে 'সি' ইউনিটের অধীনভুক্ত ব্যবসায় প্রশাসন অনুষদের ভর্তি পরীক্ষা সকাল সাড়ে ৯টায় দিনের দ্বিতীয় শিফট এবং দুপুর ২টায় তৃতীয় শিফটে অনুষ্ঠিত হয়। 'সি' ইউনিটে মোট ৫৪০ টি আসনের বিপরীতে ৮৯৩০ জন পরীক্ষার্থী আবেদন করেন এবং ইউনিটটিতে উপস্থিতির হার ছিলো ৮৭ শতাংশ পরীক্ষার্থী।

দ্বিতীয় দিন মঙ্গলবার 'বি' ইউনিটভুক্ত কলা মানবিক ও সামাজিক বিজ্ঞান এবং আইন অনুষদের ভর্তি পরীক্ষা দিনের প্রথম, দ্বিতীয়, তৃতীয় ও চতুর্থ শিফটে অনুষ্ঠিত হয়। এ বছর 'বি' ইউনিটে মোট ১০৬৫ টি আসনের বিপরীতে ২৭৬৩৭ জন পরীক্ষার্থী আবেদন করেন।  ইউনিট সমন্বয়কারী সূত্র জানা যায় এবার 'বি' ইউনিটের মোট উপস্থিতির হার ছিল ৯২  শতাংশ।

ভর্তি পরীক্ষার তৃতীয় দিন বুধবার ‘ডি’ ইউনিটভুক্ত বিজ্ঞান অনুষদ, প্রকৌশল ও প্রযুক্তি অনুষদ এবং জীব বিজ্ঞান অনুষদে মোট ৫৫০ আসনের বিপরীতে ২৩১৫২ জন পরীক্ষার্থী আবেদন করেন। এ বছর 'ডি' ইউনিটের প্রায় ৯২ শতাংশ পরীক্ষার্থী উপস্থিত ছিল বলে ইউনিট সমন্বয়কারী সূত্রে জানা যায়।

ভর্তি পরীক্ষা চলাকালীন বিভিন্ন কেন্দ্র পরিদর্শন করেন বিশ্ববিদ্যালয়ের উপাচার্য অধ্যাপক ড. মোঃ হারুন উর রশিদ আসকারী, উপ-উপাচার্য অধ্যাপক ড. মোঃ শাহিনুর রহমান, কোষাধ্যক্ষ অধ্যাপক ড. মোঃ সেলিম তোহা, (ভারপ্রাপ্ত) রেজিস্ট্রার এস এম আব্দুল লতিফ, ছাত্র উপদেষ্টা ও (ভারপ্রাপ্ত) প্রক্টর অধ্যাপক ড. পরেশ চন্দ্র বর্ম্মন সহ বিভিন্ন অনুষদের ডিন ও ইউনিট সমন্বয়কারীগণ।

এছাড়া এবারের ভর্তি পরীক্ষা সুষ্ঠু ও শান্তিপূর্ণ সম্পন্ন হওয়ায় বিশ্ববিদ্যালয়ের উপাচার্য অধ্যাপক ড. মোঃ হারুন উর রশিদ আসকারী, উপ-উপাচার্য অধ্যাপক ড. মোঃ শাহিনুর রহমান শাহিন, কোষাধ্যক্ষ অধ্যাপক ড. মোঃ সেলিম তোহা বিশ্ববিদ্যালয়ের প্রক্টরিয়াল বডি, ছাত্র- উপদেষ্টা, সকল ইউনিট সমন্বয়কারীগণ, সকল পর্যায়ের শিক্ষক, কর্মকর্তা-কর্মচারী, কুষ্টিয়া-ঝিনাইদহ জেলার পুলিশ প্রশাসন, র‌্যাব, গোয়েন্দা সংস্থা, বিভিন্ন রাজনৈতিক সংগঠনের নেতৃবৃন্দ, প্রিন্ট ও ইলেকক্ট্রনিক মিডিয়ার সাংবাদিকবৃন্দ, সকল ছাত্র সংগঠন এবং বিএনসিসি ও রোভার স্কাউটস এর সদস্যদের প্রতি আন্তরিক ধন্যবাদ ও কৃতজ্ঞতা জানিয়েছেন।

ভর্তি পরীক্ষার সার্বিক বিষয়ে বিশ্ববিদ্যালয়ের উপাচার্য অধ্যাপক ড. রাশীদ আসকারী বলেন, "এ বারের ভর্তি পরীক্ষা নিচ্ছিদ্র নিরাপত্তার মধ্যদিয়ে সুষ্ঠুভাবে সম্পন্ন হয়েছে"।

বাংলাপত্রিকা/এসএ

খবরটি গুরুত্বপূর্ণ মনে হলে পেজে লাইক দিয়ে সাথে থাকুন