নাটোরে সহোদর দুই দাদন ব্যবসায়ীর খপ্পর থেকে মুক্তি পেতে চান ভুক্তভোগীরা

লিটন হোসেন লিমন, নাটোর প্রতিনিধি | সারাদেশ
প্রকাশিত: শুক্রবার, ১৮ অক্টোবর ২০১৯ | ০৮:০৪:০৬ পিএম
নাটোরে সহোদর দুই দাদন ব্যবসায়ীর খপ্পর থেকে মুক্তি পেতে চান ভুক্তভোগীরা
নাটোরের গুরুদাসপুরে দুই সহোদরের খপ্পরে পড়ে সর্বস্বান্ত হওয়ার অভিযোগ করেছেন এলাকার দরিদ্র অসহায় মানুষ। গুরুদাসপুর শহরের চাঁচকৈড় গাড়িষাপাড়া মহল্লার ফজের মন্ডলের দুই ছেলে হাফিজুল ইসলাম ভিখারী (৪০) ও হাসেম আলী (৩৭) এলাকার দরিদ্র মানুষের অসহায়ত্বের সুযোগে চড়া সুদে দাদন হিসাবে টাকা খাটান।

সুদে-আসলে টাকা শোধ করার পরও ভুক্তভোগীদের ঋণ শোধ হয় না বলে অভিযোগ করেন অসহায় গরীব দাদন গহনকারীরা। উপজেলার সাহাপুর গ্রামের দিনমজুর আহমেদ আলীর ছেলে রতন দুই বছর আগে হাসেম আলীর কাছ থেকে মাত্র দুই হাজার টাকা ঋণ নেন। পরে তাকে ছয় হাজার টাকা দিতে হয় ঋণ শোধ করতে হয়। তারপরও নাকি রতনের ঋণ শোধ হয়নি। সুদে-আসলে ৪০ হাজার টাকার দাবি দাদন ব্যবসায়ী হাসেম আলীর। ওই টাকার জন্য হুমকি-ধামকি দেয়ার অভিযোগে গুরুদাসপুরের ইউএনও বরাবর লিখিত অভিযোগ দাখিল করেছেন রতন আলীসহ অন্যান্য ভুক্তভোগীরা। তারা সুদখোর দুই ভাইয়ের খপ্পর থেকে মুক্তি পেতে চান।

আরেক ভুক্তভোগী বুদ্দু সরদার অভিযোগ কওে বলেন, টাকার বদলে তারা কয়েকজনের জমিও দখল করেছেন।

এসময় উপস্থিত গুরুদাসপুর উপজেলা চেয়ারম্যান মোঃ আনোয়ার হোসেন এমন অন্যায়ের বিরুদ্ধে রুখে দাড়াতে সকলকে ঐক্যবদ্ধ হওয়ার আহবান জানান। এদিকে হাফিজুল ইসলাম ভিখারী ও তার ভাইয়ের ফোনে একাধিকবার যোগাযোগ করার চেষ্টা করলেও তাদের বক্তব্য নেয়া সম্ভব হয়নি।

এ ব্যাপারে ইউএনও মোঃ তমাল হোসেন বলেন, ওই দুই ভাইয়ের বিরুদ্ধে অভিযোগ তদন্ত করে প্রচলিত আইনে ব্যবস্থা নেওয়া হবে।

বাংলাপত্রিকা/এসআর

খবরটি গুরুত্বপূর্ণ মনে হলে পেজে লাইক দিয়ে সাথে থাকুন