শেরপুর উপজেলা নির্বাচনের শেষ সময়ে প্রচার-প্রচারনায় ব্যস্ত প্রার্থীরা

মনিরুজ্জামান মনির, শেরপুর প্রতিনিধি | সারাদেশ
প্রকাশিত: শনিবার, ১২ অক্টোবর ২০১৯ | ১০:৫৯:৫৫ পিএম
শেরপুর উপজেলা নির্বাচনের শেষ সময়ে প্রচার-প্রচারনায় ব্যস্ত প্রার্থীরা
আগামী ১৪ অক্টোবর ৫ম ধাপে শেরপুর সদর উপজেলায় নিবাচন অনুষ্ঠিত হতে যাচ্ছে। শনিবার রাত ১২টা পর্যন্ত প্রচার চালাতে পারবেন প্রার্থীরা। তাই প্রার্থীরা প্রচার-প্রচারনায় ব্যস্ত সময় পার করছেন। বিভিন্ন দোকান পাঠ থেকে শুরু করে হাট বাজারে নিবাচনী প্রার্থীরা ভোটারদের দ্বারে দ্বারে ভোট চেয়ে ব্যস্ত সময় পার করছেন।   

১৪ অক্টোবর সকাল ৮টা থেকে বিকাল ৪টা পর্যন্ত শেরপুর সদর উপজেলা ১৪টি ইউনিয়নের ১৪০টি ভোটকেন্দ্রে চেয়ারম্যান পদে ৫জন এবং ভাইস চেয়ারম্যান পুরুষ ৫ এবং মহিলা ভাইস চেয়ারম্যান ২ জন র্নিবাচনে প্রতিদ্বন্দ্বিতা করছেন।   

শেরপুর সদর উপজেলা ১৪টি ইউনিয়নে ও ১টি পৌরসভায় ৩লাখ ৬১হাজার ২৮২জন ভোটার ১৪০টি ভোট কেন্দ্রে এই প্রথম ইলেকট্রনিক্স মেশিন ইভিএম এর মাধ্যমে ভোট প্রদান করবেন।  

শেরপুর সদর উপজেলার আওয়ামী লীগের প্রার্থী রফিকুল ইসলাম নৌকা প্রতীক নিয়ে, বিএনপি শফিকুল ইসলাম মাসুদ মিয়া ধানের শীষ প্রতীক নিয়ে, জাতীয় পার্টির ইলিয়াস উদ্দিন লাঙ্গল প্রতীক নিয়ে, মিনহাজ উদ্দিন মিনাল স্বতন্ত্র প্রার্থী মোটর সাইকেল প্রতীক নিয়ে, স্বতন্ত্র প্রার্থী সাবেক উপজেলা ভাইস চেয়ারম্যান বায়েজিদ হাসান আনারস প্রতীক নিয়ে উপজেলা চেয়ারম্যান প্রার্থী হিসেবে প্রতিদ্বন্দ্বিতা করছেন।

এদিকে ভাইস চেয়ারম্যান পদে মো মনোয়ারুল ইসলাম চশমা প্রতীক নিয়ে, মুসা মিয়া মাইক প্রতীক নিয়ে, জুলহাস উদ্দিন উড়োজাহাজ প্রতীক নিয়ে, আল হেলাল টিউবয়েল প্রতীক নিয়ে, আশরাফুল আলম মিজান তালা প্রতীক নিয়ে, মহিলা ভাইস চেয়ারম্যান পদে সাবিহা জামান শাপলা কলসি প্রতীক নিয়ে এবং শামীমা আরা বেগম হাঁস প্রতীক নিয়ে প্রতিদ্বন্দ্বিতা করছেন।

শেরপুর সদর উপজেলা নিবাচনে চেয়ারম্যান এবং ভাইস চেয়ারম্যান পদে প্রার্থীরা বিভিন্ন উন্নয়নমূলক কাজকর্মের প্রতিশ্রুতির পাশাপাশি ভোটারদের মন জয় করার জন্য বিভিন্ন কৌশল অবলম্বন করছেন এবং ভোট প্রার্থনা করছেন। শেষ মহুর্তে প্রচার-প্রচারনা নিয়ে মাঠে নেমেছেন নেতাকর্মী এবং প্রার্থীর সমথক গন। আজ রাত ১২টা পর্যন্ত প্রচার চালাতে পারবেন।

শেরপুর সদর উপজেলার রিটার্নিং কর্মকর্তারা শুকুর মাহমুদ জানান, ভোটের ৩২ ঘণ্টা আগে প্রচার বন্ধ করার নিয়ম। সে অনুযায়ী প্রার্থীরা শনিবার রাত ১২টা পর্যন্ত প্রচার চালাতে পারবেন।

আজ মধ্যরাত থেকে ১৪ অক্টোবর রাত ১২ টা পর্যন্ত নির্বাচনী এলাকায় কোনো মিছিল, সভা, শোভাযাত্রা করা যাবে না। এলাকায় ১৩ অক্টোবর মধ্যরাত থেকে ২৪ ঘণ্টা যন্ত্রচালিত যানচলাচলে নিষেোজ্ঞা থাকবে।

বাংলাপত্রিকা/এসআর

খবরটি গুরুত্বপূর্ণ মনে হলে পেজে লাইক দিয়ে সাথে থাকুন