নোমানের কবিতা ‘প্রত্নতত্ত্ব’

নোমান কবির | পাঠক কলাম
প্রকাশিত: শুক্রবার, ৪ অক্টোবর ২০১৯ | ১১:২৬:৩২ পিএম
নোমানের কবিতা ‘প্রত্নতত্ত্ব’
‘প্রত্নতত্ত্ব’

শিলালিপিতে খোদাই করা নামে
তোমাকেই আবিষ্কার করব সহস্র বছর পর, পরের জন্মে আমি ঐতিহাসিক হব৷

ঐতিহাসিকের চোঁখ তুমি এড়াতেই পারবেন না কখনো,
সভ্যতার সাক্ষী করে তোমায় খুঁজব ভবিতব্য কোনো নতুন পাঠে৷

সহস্র বছর পর, দেখা হলে, প্রত্নতাত্ত্বিকের মতো অনুসন্ধিৎসু দৃষ্টিতে চেয়ে থাকব তোমার দিকে; আমরা ডুব দিব আমাদের অতীতে৷

খোলা চোঁখে স্বপ্নের মতো আমরা আমাদের অতীত দেখবো৷

হেরেমের নূপুরশিঞ্জিত ধ্বনি কিংবা যুদ্ধের দামামা শুনতে পাব; অথবা দেখতে পাব রাজকার্য পণ্ড করে তোমায় নিয়ে স্বপ্নটাকে কিভাবে দীর্ঘায়িত করেছিলাম৷

স্পষ্ট দেখতে পাব তোমায় চাওয়ার অপরাধে এই সাম্রাজ্যের পতন, প্রজাদের বিদ্রোহ আর প্রাসাদ ষড়যন্ত্র কিভাবে আমাদের আলাদা করেছিলো৷

শত সহস্র বছর পর তুমি হয়ে উঠবে আমার কাছে সবচেয়ে গুরুত্বপূর্ণ প্রত্নতত্ত্ব; যা দিয়ে আবার উদঘাটন করব ইতিহাসের নানা স্তর, সভ্যতা ও আমাদের পূর্বজন্মের নানা লেনদেন৷

খবরটি গুরুত্বপূর্ণ মনে হলে পেজে লাইক দিয়ে সাথে থাকুন