শেরপুরে সকল পূজামন্ডবে সাজসজ্জার কাজ চলছে

মনিরুজ্জামান মনির, শেরপুর প্রতিনিধি | সারাদেশ
প্রকাশিত: বুধবার, ২ অক্টোবর ২০১৯ | ০৬:৫১:৫২ পিএম
শেরপুরে সকল পূজামন্ডবে সাজসজ্জার কাজ চলছে
আর মাত্র ২দিন পরেই আসছে দেবী দুর্গাকে বরন করে নেওয়ার পালা। শেরপুরে ৯টি ইউনিয়নের সবকটি পুজামন্ডবে প্রতিমা বানানো কাজ শেষের দিকে। আগামী ৪ অক্টোবর শুক্রবার ষষ্ঠী পূজার মধ্য দিয়ে আরম্ভ হতে যাচ্ছে সনাতন ধর্মাবলম্বীদের সর্ব বৃহৎ উৎসব এই শারদীয় উৎসব।

এ উপলক্ষে শেরপুরে বিভিন্ন পূজা মন্ডপে প্রতিমা তৈরির কাজ প্রায়ই শেষের দিকে। প্রতিমা তৈরির কারিগররাও দিনরাত প্ররিশ্রম করে সাজিয়ে তুলছেন প্রতিমা। জেলা সদরে কয়েকটি পূজা মন্ডপে ঘুরে দেখা যয় প্রস্তুতি প্রায়ই শেষের পর্যায়ে রয়েছে। শেরপুর নয়আনী বাজার মাচেন্ট ক্লাব, নয়আনী ইয়াং মাচেন্ট ক্লাব, রাইচরন শাহা, ব্যাচালার ক্লাব, মুন্সিবাজার ক্লাব, রঘুনাথ বাজার কালীবাড়ি, বাসন্তীপাড়া ক্লাব, পানুকর্তার বাড়ি, মন্ডবগুলো ঘুরে দেখা যায় প্রতিমা তৈরির কাজ শেষ এখন সাজসজ্জা চলছে। জলপরি ক্লাব, চকবাজার ক্লাব, মাধবপুর ক্লাব, ডা. সুধাংশু সাহা রায় বাসা ঘুরে দেখা গেছে পুজা মন্ডপে রঙ্গের তুলি ও সাজসজ্জার কাজ চলছে।

এবার শেরপুর সদর উপজেলা বিভিন্ন এলাকার সবকটি মিলে মোট ৪৪টি পূজা মন্ডবে একই সময়ে পূজা আরম্ভ হতে যাচ্ছে। সনাতন ধর্মাবলম্বীদের সর্ব বৃহৎ উৎসব এই শারদীয় দূর্গাপূজা।

ষষ্ঠী পূজার মধ্য দিয়ে শুরু হবে পূজার আনুষ্ঠানিক যাত্রা। এইদিনে দেবীদূর্গা অশুর বধের পর বাবার বাড়িতে আগমন ঘটে। এই দিনে দেশ ও জাতির সমৃদ্ধি কামনায় দেবী দূর্গার আগমন ঘটবে ষষ্ঠী পূজার মধ্যদিয়ে।

শেরপুরে পূজা উদযাপন কমিটির সাধারণ সম্পাদক চন্দন কুমার সাহা বলেছেন, এবার পূজার সার্বিক পরিস্থিতি এখন পর্যন্ত ভাল। কোথাও কোন অপ্রীতিকর ঘটনার খবর পাওয়া যায়নি। শেরপুরে আইন শৃঙ্খলা পরিস্থিতি খুব ভাল। শেরপুরে পুলিশ প্রশাসন সার্বিক নিরাপত্তা দেওয়ার ব্যাপারে হিন্দু সম্পাদয়ের সাথে মতবিনিময় সভা করেছেন। সার্বিক নিরাপত্তা দেওয়ার ব্যাপারে শেরপুরে পুলিশ সুপার আমাদের নিশ্চিত করেছেন। এবার দেবী দূর্গা সকল প্রকার অশুভ সাম্প্রদায়িক শক্তিকে বিনাশ করবে এটাই সকলের কামনা।

বাংলাপত্রিকা/এসএ

খবরটি গুরুত্বপূর্ণ মনে হলে পেজে লাইক দিয়ে সাথে থাকুন