শেরপুরে দূর্গাপূজা উপলক্ষে নিরাপত্তা বিষয়ে মতবিনিময় সভা

মনিরুজ্জামান মনির, শেরপুর জেলা প্রতিনিধি | সারাদেশ
প্রকাশিত: রবিবার, ২২ সেপ্টেম্বর ২০১৯ | ০৪:১৫:০০ পিএম
শেরপুরে দূর্গাপূজা উপলক্ষে নিরাপত্তা বিষয়ে মতবিনিময় সভা
শেরপুরে শারদীয় দূর্গাপূজা উপলক্ষে হিন্দু সম্প্রদায়ের সাথে নিরাপত্তা বিষয়ে মতবিনিময় সভা করেছে জেলা পুলিশ।

রবিবার সকাল ১১টায় শেরপুর পুলিশ লাইন্স মিলনায়তনে এ মতবিনিময় সভার আয়োজন করা হয়।শেরপুরের পুলিশ সুপার কাজী আশরাফুল আজিম পিপিএম এর সভাপতিত্বে এবং শেরপুরের অতিরিক্ত পুলিশ সুপার সদর সার্কেল আমিনুল ইসলামের সঞ্চালনায় মতবিনিময় সভা শুরু হয়।

শেরপুরের পুলিশ সুপার কাজী আশরাফুল আজিম পিপিএম তার স্বাগতম বক্তৃতায় আসন্ন দূর্গাপূজার উপলক্ষে নিরাপত্তা নানা রকম দিকগুলো তুলে ধরেন এর মধ্যে উল্লেখ যোগ্য দিকগুলো হলো নিরাপত্তা বিস্তারের জন্য প্রতি পূজা মন্ডমে সিসি ক্যামেরা অন্তভুক্ত নিশ্চয়তা করতে হবে, সেচ্ছাসেবকের বিষয় নিশ্চিত করতে হবে, মাদকের বিষয়টি নিরুৎসাহিত করতে হবে, মেলার বিষয় নিরুৎসাহিত করতে হবে, তল্লাশির বিষয়ে সহযোগিতা করতে হবে, মন্দিরের বিষয়ে যে কোন তথ্য পুলিশকে জানাতে হবে, মন্দিরের ফোকাল পয়েন্টে নাম এবং ফোন নাম্বার প্রকাশ্য স্থানে পরিদর্শন করতে হবে, একটি পরিদর্শক বই মন্দিরে রাখতে হবে। এবং শারদীয় দুর্গাপূজা সুন্দর এবং স্বার্থকভাবে উৎসব উদযাপন নিশ্চয়তা নিরাপত্তার জন্য সকলের সহযোগিতা কামনা করেন। মতবিনিময় সভায় শেরপুর জেলাসহ প্রত্যেক উপজেলার হিন্দু সম্প্রদায়ের সভাপতি সাধারণ সম্পাদক বৃন্দ অনুষ্ঠানে নানাবিধ দিক তুলে ধরেন এবং পুলিশকে সহযোগিতা করার আশ্বাস প্রদান করেন।

অনুষ্ঠানে অন্যান্যদের মধ্যে উপস্থিত ছিলেন, অতিরিক্ত পুলিশ সুপার (প্রশাসন), মোঃ বিল্লাল হোসেন, অতিরিক্ত পুলিশ সুপার (ইন সার্ভিস) মোস্তফা কামাল, সহকারী পুলিশ সুপার (নালিতাবাড়ি সার্কেল) মোঃ জাহাঙ্গীর আলম, নকলা থানার অফিসার ইনচার্জ (ওসি)আলমগীর শাহ, ঝিনাইগাতী থানার অফিসার ইনচার্জ (ওসি) আবু বক্কর সিদ্দিক, জেলা পূজা উদযাপন পরিষদের সভাপতি সুব্রত কুমার দে ভানু, সাধারণ সম্পাদক চন্দন কুমার সাহা, আরও হিন্দু সম্প্রাদয়ের বিভিন্ন জেলা উপজেলার নেতুবুন্দ উপস্থিত ছিলেন।

উল্লেখ্য, শেরপুর সদর উপজেলায় ৬৪টি, নালিতাবাড়ি উপাজেলায় ৩৫টি, ঝিনাইগাতী উপজেলায় ১৬টি, নকলা উপজেলায় ২০টি, শীবরদী উপজেলায় ৯টি মোট ১৪৪ টি পুজামন্ডবে শেরপুর জেলায় দূর্গাপূজা অনুষ্ঠিত হবে। পূজা মন্ডবে সার্বিক নিরাপত্তায় ২৮শে সেপ্টেম্বর থেকে ৩রা অক্টোবর পূজাচলাকালীন থেকে বিসর্জন পর্যন্ত জেলা পুলিশ সার্বিক নিরাপত্তা কাজে নিয়োজিত থাকবে।

বাংলাপত্রিকা/এসএ

খবরটি গুরুত্বপূর্ণ মনে হলে পেজে লাইক দিয়ে সাথে থাকুন